‘পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব’
jugantor
‘পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব’

  জমির হোসেন, ইতালি থেকে  

২৭ জুন ২০২২, ২২:৫৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষ্যে জাতীয় পর্যায়ে আয়োজিত বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের সাথে সঙ্গতি রেখে ইতালির রোমে সকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে দূতাবাস প্রাঙ্গণে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উৎসবমুখর ও আনন্দঘন এ অনুষ্ঠানে ইতালিতে বসবাসরত প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা, বিভিন্ন স্তরের নারী নেতা, মিডিয়াকর্মীসহ দূতাবাসের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে অনুষ্ঠান আরও প্রাণবন্ত হয়ে উঠে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

দূতাবাস আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঊষালগ্নে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি দূর-দূরান্ত থেকে উপস্থিত হওয়ার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রদূত। এ সময় তিনি উল্লেখ করেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব, আত্মনির্ভরশীলতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। বাঙালি জাতির এ গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিনে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতা, বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত ও যুগোপযোগী পদক্ষেপের ফলে সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে প্রমত্তা পদ্মার বুকে এই সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। অসংখ্য প্রতিকূলতা ও চক্রান্ত পরাভূত করে বাঙালির স্বপ্ন পূরণের এ দিনে এ সেতু নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন।

অনুষ্ঠানে জাতির এ মাহেন্দ্রক্ষণ উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ এবং পদ্মা সেতুর উপর নির্মিত বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এ গৌরবময় মুহূর্তে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সবাইকে আপ্যায়ন ও মিষ্টিমুখ করানো হয়। উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশি গণ্যমান্য ব্যক্তি ও নেতারা দূতাবাসের এ উদ্যোগে এবং বিশেষ এ আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানান। পরিশেষে সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে রাষ্ট্রদূত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

‘পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব’

 জমির হোসেন, ইতালি থেকে 
২৭ জুন ২০২২, ১০:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষ্যে জাতীয় পর্যায়ে আয়োজিত বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের সাথে সঙ্গতি রেখে ইতালির রোমে সকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে দূতাবাস প্রাঙ্গণে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উৎসবমুখর ও আনন্দঘন এ অনুষ্ঠানে ইতালিতে বসবাসরত প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা, বিভিন্ন স্তরের নারী নেতা, মিডিয়াকর্মীসহ দূতাবাসের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে অনুষ্ঠান আরও প্রাণবন্ত হয়ে উঠে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

দূতাবাস আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঊষালগ্নে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি দূর-দূরান্ত থেকে উপস্থিত হওয়ার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রদূত। এ সময় তিনি উল্লেখ করেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব, আত্মনির্ভরশীলতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। বাঙালি জাতির এ গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিনে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতা, বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত ও যুগোপযোগী পদক্ষেপের ফলে সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে প্রমত্তা পদ্মার বুকে এই সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। অসংখ্য প্রতিকূলতা ও চক্রান্ত পরাভূত করে বাঙালির স্বপ্ন পূরণের এ দিনে এ সেতু নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন।

অনুষ্ঠানে জাতির এ মাহেন্দ্রক্ষণ উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ এবং পদ্মা সেতুর উপর নির্মিত বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এ গৌরবময় মুহূর্তে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সবাইকে আপ্যায়ন ও মিষ্টিমুখ করানো হয়। উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশি গণ্যমান্য ব্যক্তি ও নেতারা দূতাবাসের এ উদ্যোগে এবং বিশেষ এ আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানান। পরিশেষে সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে রাষ্ট্রদূত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন