পর্তুগালে জাতিসংঘের মহাসাগর সম্মেলনে বাংলাদেশ
jugantor
পর্তুগালে জাতিসংঘের মহাসাগর সম্মেলনে বাংলাদেশ

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

৩০ জুন ২০২২, ০০:১১:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে ১৪০টি দেশের সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের অংশগ্রহণে ২৭ জুন জাতিসংঘের দ্বিতীয় মহাসাগর সম্মেলন ২০২২ শুরু হয়েছে। এতে সমুদ্র উপকূলবর্তী দেশ হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে বাংলাদেশেও অংশগ্রহণ করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব রিয়ার অ্যাডমিরাল (অব.) খোরশেদ আলম (বিএন), পর্তুগাল নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান এবং দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল রাজি ও আলমগীর হোসেনসহ বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল সম্মেলনে যোগদান করে।

বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল উদ্বোধনী দিনে অ্যাড্রেসিং মেরিন সলিউশন শীর্ষক একটি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে এবং ২৮ জুন টেকসই সমুদ্রভিত্তিক অর্থনীতির প্রচার শক্তিশালীকরণ (বিশেষ করে ক্ষুদ্র দ্বীপের উন্নয়নশীল দেশ এবং স্বল্পোন্নত দেশগুলোর জন্য) শীর্ষক ইন্টারঅ্যাকটিভ সংলাপে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে অংশ নেন।

সম্মেলনে বাংলাদেশের নেতৃত্ব প্রদান করার জন্য সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন আগামী ৩০ জুন পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে বাংলাদেশের পক্ষে বিবৃতি প্রদান করবেন। তাছাড়া তিনি পর্তুগিজ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোয়াও গোমেজ ক্রাভিনহোর সাথে দ্বীপাক্ষিক বৈঠক করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্তুগালে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের স্থায়ী চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধন করবেন বলেও দূতাবাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সামুদ্রিক সম্পদের টেকসই ব্যবহার এবং উদ্ভাবনী নতুন আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে সমুদ্র সংরক্ষণের কৌশলগত করণীয় নির্ধারণে জাতিসংঘের এটি দ্বিতীয় আয়োজন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

পর্তুগালে জাতিসংঘের মহাসাগর সম্মেলনে বাংলাদেশ

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
৩০ জুন ২০২২, ১২:১১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে ১৪০টি দেশের সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের অংশগ্রহণে ২৭ জুন জাতিসংঘের দ্বিতীয় মহাসাগর সম্মেলন ২০২২ শুরু হয়েছে। এতে সমুদ্র উপকূলবর্তী দেশ হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে বাংলাদেশেও অংশগ্রহণ করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব রিয়ার অ্যাডমিরাল (অব.) খোরশেদ আলম (বিএন), পর্তুগাল নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান এবং দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল রাজি ও আলমগীর হোসেনসহ বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল সম্মেলনে যোগদান করে।

বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল উদ্বোধনী দিনে অ্যাড্রেসিং মেরিন সলিউশন শীর্ষক একটি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে এবং ২৮ জুন টেকসই সমুদ্রভিত্তিক অর্থনীতির প্রচার শক্তিশালীকরণ (বিশেষ করে ক্ষুদ্র দ্বীপের উন্নয়নশীল দেশ এবং স্বল্পোন্নত দেশগুলোর জন্য) শীর্ষক ইন্টারঅ্যাকটিভ সংলাপে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে অংশ নেন।

সম্মেলনে বাংলাদেশের নেতৃত্ব প্রদান করার জন্য সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন আগামী ৩০ জুন পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে বাংলাদেশের পক্ষে বিবৃতি প্রদান করবেন। তাছাড়া তিনি পর্তুগিজ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোয়াও গোমেজ ক্রাভিনহোর সাথে দ্বীপাক্ষিক বৈঠক করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্তুগালে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের স্থায়ী চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধন করবেন বলেও দূতাবাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সামুদ্রিক সম্পদের টেকসই ব্যবহার এবং উদ্ভাবনী নতুন আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে সমুদ্র সংরক্ষণের কৌশলগত করণীয় নির্ধারণে জাতিসংঘের এটি দ্বিতীয় আয়োজন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন