ভূমধ্যসাগর
jugantor
ভূমধ্যসাগর

  শরীফুল আলম, নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে  

১৩ আগস্ট ২০২২, ০৪:৩৫:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ বাতাসতাড়িত ঝকঝকে রোদ নেই
মেঘে আবৃত পুরোটা আকাশ,
এমন আকাশ দেখলে
আমার আকুলতা বেড়ে যায়
নিরস এই শহরটাকে মনে হয় নৃত্যকলা
অনিবার্য লবণ, চেনা ঘ্রাণের কথা মনে পড়ে যায়
সরু গলি। আজ কোনো কোলাহল নেই
কোনো ব্যস্ততা নেই
ইচ্ছে হয় পেরিয়ে যাই সীমারেখা দুজনে একজোট হয়ে
তুমি কখনো কখনো বানের মত ফুঁসে উঠো
কখনো বা আমি
মনে হয় আমিই যেন তোমার এক কার্যকরী বন্ধু
আর তুমি আমার বান্ধব।

আজ ফেরারি মেঘ উদাস হয়েছে
কিছু ঝমঝম, কিছু অঝোর বৃষ্টি
পুনঃঅস্থির নব্য নুপূরে
আহা পায়েলিয়া
খুনসুঁটিতে তুমি রাঙ্গা বৈভব
ভাওয়াইয়া কীর্তন
অথচ ভাওয়াইয়া, কীর্তনেও দুজন লাগে
যেমন আকাশের কোলে থাকে চাঁদ
তুমিও থাক আমার কোলে
আমার ক্লান্ত দৃষ্টি এখন কেবল তোমাকেই ঘিরে।

ভাবছি, পারব তো সামাল দিতে
একটু একটু সময় সরে যায়
বেলা বাড়ে কড়া নাড়ে
ভালো নেই এখন চারিপাশ
ভালো নেই হাসাহাসি
ভালো নেই ফুল
ভালো নেই স্বপ্ন, ওক গাছের ছায়া
শ্রাবণের মায়া,
সুনসান হ্রদ নেই
হ্রদে কোনো আয়োডিন জল নেই
গায়েগতরে তুমি বড়, আমিও ঢের বড়
তফাৎ শুধু
আমি এখন আটলান্টিকের বায়ু সেবন করি
আর তুমি? বঙ্গোপসাগরের,
জানিনা তোমার ভূমধ্যরেখায় কবে সাঁতার দেব
তোমার বৃষ্টির জলে নিজেকে বিসর্জন দেব।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ভূমধ্যসাগর

 শরীফুল আলম, নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে 
১৩ আগস্ট ২০২২, ০৪:৩৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ বাতাসতাড়িত ঝকঝকে রোদ নেই
মেঘে আবৃত পুরোটা আকাশ,
এমন আকাশ দেখলে
আমার আকুলতা বেড়ে যায়
নিরস এই শহরটাকে মনে হয় নৃত্যকলা
অনিবার্য লবণ, চেনা ঘ্রাণের কথা মনে পড়ে যায়
সরু গলি। আজ কোনো কোলাহল নেই
কোনো ব্যস্ততা নেই
ইচ্ছে হয় পেরিয়ে যাই সীমারেখা দুজনে একজোট হয়ে
তুমি কখনো কখনো বানের মত ফুঁসে উঠো
কখনো বা আমি
মনে হয় আমিই যেন তোমার এক কার্যকরী বন্ধু
আর তুমি আমার বান্ধব।

আজ ফেরারি মেঘ উদাস হয়েছে
কিছু ঝমঝম, কিছু অঝোর বৃষ্টি
পুনঃঅস্থির নব্য নুপূরে
আহা পায়েলিয়া
খুনসুঁটিতে তুমি রাঙ্গা বৈভব
ভাওয়াইয়া কীর্তন
অথচ ভাওয়াইয়া, কীর্তনেও দুজন লাগে
যেমন আকাশের কোলে থাকে চাঁদ
তুমিও থাক আমার কোলে
আমার ক্লান্ত দৃষ্টি এখন কেবল তোমাকেই ঘিরে।

ভাবছি, পারব তো সামাল দিতে
একটু একটু সময় সরে যায়
বেলা বাড়ে কড়া নাড়ে
ভালো নেই এখন চারিপাশ
ভালো নেই হাসাহাসি
ভালো নেই ফুল
ভালো নেই স্বপ্ন, ওক গাছের ছায়া
শ্রাবণের মায়া,
সুনসান হ্রদ নেই
হ্রদে কোনো আয়োডিন জল নেই
গায়েগতরে তুমি বড়, আমিও ঢের বড়
তফাৎ শুধু
আমি এখন আটলান্টিকের বায়ু সেবন করি
আর তুমি? বঙ্গোপসাগরের,
জানিনা তোমার ভূমধ্যরেখায় কবে সাঁতার দেব
তোমার বৃষ্টির জলে নিজেকে বিসর্জন দেব।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন