রোমানিয়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত
jugantor
রোমানিয়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

  খান লিটন, রোমানিয়া থেকে   

১৭ আগস্ট ২০২২, ২২:৪৭:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

যথাযথ মর্যাদায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে রোমানিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোমানিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতিয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় ও জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

সন্ধ্যা ৭টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রোমানিয়ায় নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ দাউদ আলী ও অতিরিক্ত সচিব শেখ কৌশিক ইকবালসহ অন্যরা। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে ১ মিনিট নীরবতা পালন করে দোয়া-মোনাজাত করা হয়। এরপর রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাণী পাঠ করা হয়।

রাষ্ট্রদূত যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার ৫৭ নম্বর সাক্ষী তার বক্তব্যে বলেন, মেজর (অব.) ডালিম তার কুকুরের চিকিৎসার নামে নিজে টাকা তুলে নিতেন।

রাষ্ট্রদূত রোমানিয়াসহ প্রতিটি দেশের প্রবাসীদের বৈধভাবে দেশে টাকা পাঠানোর জন্য আহ্বান জানান এবং হুন্ডি কারবারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি দেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

রোমানিয়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

 খান লিটন, রোমানিয়া থেকে  
১৭ আগস্ট ২০২২, ১০:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যথাযথ মর্যাদায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে রোমানিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোমানিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতিয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় ও জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

সন্ধ্যা ৭টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রোমানিয়ায় নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ দাউদ আলী ও অতিরিক্ত সচিব শেখ কৌশিক ইকবালসহ অন্যরা। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে ১ মিনিট নীরবতা পালন করে দোয়া-মোনাজাত করা হয়। এরপর রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাণী পাঠ করা হয়।

রাষ্ট্রদূত যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার ৫৭ নম্বর সাক্ষী তার বক্তব্যে বলেন, মেজর (অব.) ডালিম তার কুকুরের চিকিৎসার নামে নিজে টাকা তুলে নিতেন।

রাষ্ট্রদূত রোমানিয়াসহ প্রতিটি দেশের প্রবাসীদের বৈধভাবে দেশে টাকা পাঠানোর জন্য আহ্বান জানান এবং হুন্ডি কারবারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি দেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন