মালদ্বীপে অসুস্থ বিল্লালকে দেশে ফেরার টিকিট দিলেন হাইকমিশনার
jugantor
মালদ্বীপে অসুস্থ বিল্লালকে দেশে ফেরার টিকিট দিলেন হাইকমিশনার

  মোহাম্মদ মাহামুদুল, মালদ্বীপ থেকে  

১৯ আগস্ট ২০২২, ০২:৪৩:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

গুরুতর অসুস্থ প্রবাসী বাংলাদেশি মোহাম্মদ বিল্লালকে (৪৪) দেশে ফেরার টিকিট দিয়েছেন মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার।

দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য বিল্লালের হাতে বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) হাইকমিশনের পক্ষ থেকে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ তহবিল থেকে একটি টিকিট হস্তান্তর করেন হাইকমিশনের প্রথম সচিব (শ্রম) ও দূতালয়প্রধান সোহেল পারভেজ। এ সময় হাইকমিশনের কল্যাণ সহকারী জসিম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ২১ আগস্ট মোহাম্মদ বিল্লালের দেশে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিল্লাল কিছুদিন আগে স্ট্রোক করেন এবং তার শরীরের একাংশ প্যারালাইজড হয়ে যায়। এরপর তিনি মালের আইজিএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

গত ৩০ জুলাই খবর পেয়ে বিল্লালকে হাসপাতালে দেখতে যান মালদ্বীপ হাইকমিশন অফিসের কল্যাণ সহকারী আল মামুন পাঠান ও জসিম উদ্দীন। তখন তিনি নাম-ঠিকানা কোনো কিছুই বলতে পারেননি। মালদ্বীপে তার কোনো নিকটাত্মীয় বা স্বজন আছে কি-না সেটাও জানাতে পারেননি। শুধু বলতে পেরেছেন, গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার ইলিয়টগঞ্জে।

পরে হাইকমিশনার অফিস ও হাসপাতাল সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যায়, বিল্লাল কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানার দাড়িপাড়া গ্রামের আলী মিয়া ও পরাশা বেগমের ছেলে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালদ্বীপে অসুস্থ বিল্লালকে দেশে ফেরার টিকিট দিলেন হাইকমিশনার

 মোহাম্মদ মাহামুদুল, মালদ্বীপ থেকে 
১৯ আগস্ট ২০২২, ০২:৪৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গুরুতর অসুস্থ প্রবাসী বাংলাদেশি মোহাম্মদ বিল্লালকে (৪৪) দেশে ফেরার টিকিট দিয়েছেন মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার।

দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য বিল্লালের হাতে বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) হাইকমিশনের পক্ষ থেকে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ তহবিল থেকে একটি টিকিট হস্তান্তর করেন হাইকমিশনের প্রথম সচিব (শ্রম) ও দূতালয়প্রধান সোহেল পারভেজ। এ সময় হাইকমিশনের কল্যাণ সহকারী জসিম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ২১ আগস্ট মোহাম্মদ বিল্লালের দেশে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিল্লাল কিছুদিন আগে স্ট্রোক করেন এবং তার শরীরের একাংশ প্যারালাইজড হয়ে যায়। এরপর তিনি মালের আইজিএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

গত ৩০ জুলাই খবর পেয়ে বিল্লালকে হাসপাতালে দেখতে যান মালদ্বীপ হাইকমিশন অফিসের কল্যাণ সহকারী আল মামুন পাঠান ও জসিম উদ্দীন। তখন তিনি নাম-ঠিকানা কোনো কিছুই বলতে পারেননি। মালদ্বীপে তার কোনো নিকটাত্মীয় বা স্বজন আছে কি-না সেটাও জানাতে পারেননি। শুধু বলতে পেরেছেন, গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার ইলিয়টগঞ্জে।

পরে হাইকমিশনার অফিস ও হাসপাতাল সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যায়, বিল্লাল কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানার দাড়িপাড়া গ্রামের আলী মিয়া ও পরাশা বেগমের ছেলে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন