বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা যাচাইয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি
jugantor
বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা যাচাইয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি

  সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব থেকে  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:১৯:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে সৌদি মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমইটির (BMET- Bureau of Manpower, Employment and Training) বাংলাদেশি কর্মীদের স্কিল ভেরিফিকেশন বিষয়ে এক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

এর ফলে সৌদি আরবে আসতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি দক্ষ-আধা দক্ষ কর্মীদের বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতা যাচাই করে সনদ প্রদান করা হবে। সনদের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর। যে সনদ থাকার ফলে সৌদি আরবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে চাকুরি পাওয়া সহজ হবে এবং বেতন ভাতাদি ও ওই বিষয়ের দক্ষতা অনুযায়ী পাওয়া যাবে। এ সনদের মাধ্যমে একবার সৌদি আরব আসলে আর কোনো পরীক্ষা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।

সৌদি মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে তাকামল এ স্কিল ভেরিফিকেশনের কাজ বাংলাদেশে করবে।

যেসব বিষয়ে স্কিল ভেরিফিকেশন করা হবে তা হলো- প্লাম্বিং, ইলেকট্রিশিয়ান, মেকানিক, ওয়েল্ডিং, কার্পেন্টার পেইন্টার, প্লাস্টারার, বিল্ডারসহ মোট ২৩টি বিষয়।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. জাবেদ পাটোয়ারী এ চুক্তি স্বাক্ষর বিষয়ে বলেন, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর এ চুক্তিটি স্বাক্ষর হয়েছে। আশা করি আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ-আধা দক্ষ কর্মীরা সনদ নিয়ে সৌদি আরবে আসবেন। যার ফলে সৌদি আরবে ভালো চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং সৌদি আরব থেকে আমাদের রেমিট্যান্স প্রবাহ আরও বৃদ্ধি পাবে।

২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরের সময় BMET-এর মহাপরিচালক শহীদুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা যাচাইয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি

 সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব থেকে 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:১৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে সৌদি মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমইটির (BMET- Bureau of Manpower, Employment and Training) বাংলাদেশি কর্মীদের স্কিল ভেরিফিকেশন বিষয়ে এক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

এর ফলে সৌদি আরবে আসতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি  দক্ষ-আধা দক্ষ কর্মীদের বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতা যাচাই করে সনদ প্রদান করা হবে। সনদের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর। যে সনদ থাকার ফলে সৌদি আরবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে চাকুরি পাওয়া সহজ হবে এবং বেতন ভাতাদি ও ওই বিষয়ের দক্ষতা অনুযায়ী পাওয়া যাবে। এ সনদের মাধ্যমে একবার সৌদি আরব আসলে আর কোনো পরীক্ষা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।

সৌদি মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে তাকামল এ স্কিল ভেরিফিকেশনের কাজ বাংলাদেশে করবে।

যেসব বিষয়ে স্কিল ভেরিফিকেশন করা হবে তা হলো- প্লাম্বিং, ইলেকট্রিশিয়ান, মেকানিক, ওয়েল্ডিং, কার্পেন্টার পেইন্টার, প্লাস্টারার, বিল্ডারসহ মোট ২৩টি বিষয়।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. জাবেদ পাটোয়ারী এ চুক্তি স্বাক্ষর বিষয়ে বলেন, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর এ চুক্তিটি স্বাক্ষর হয়েছে। আশা করি আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ-আধা দক্ষ কর্মীরা সনদ নিয়ে সৌদি আরবে আসবেন। যার ফলে সৌদি আরবে ভালো চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং সৌদি আরব থেকে আমাদের রেমিট্যান্স প্রবাহ আরও বৃদ্ধি পাবে।

২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরের সময় BMET-এর মহাপরিচালক শহীদুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ উপস্থিত ছিলেন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর