দুবাইয়ে বিনামূল্যে রুটি বিতরণ শুরু
jugantor
দুবাইয়ে বিনামূল্যে রুটি বিতরণ শুরু

  ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে  

০২ অক্টোবর ২০২২, ০৩:০২:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে বিনামূল্যে গরম রুটি বিতরণ
করা শুরু হয়েছে। জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় দুবাইয়ে এ ব্যবস্থা চালু করা
হয়েছে।
মরুভূমির দেশ দুবাই তার প্রায় সব খাদ্যপণ্যই বিদেশ থেকে আমদানি করে। রাশিয়া-
ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে পুরো পৃথিবীতেই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় দরিদ্র অভিবাসীদের
জন্য এমন উদ্যোগ গ্রহণ করল দুবাইয়ের সরকার।
সংবাদ সূত্রে জানা যায়, গত এক সপ্তাহে সুপার মার্কেটগুলোতে মোট ১০টি টাচস্ক্রিন
কম্পিউটারযুক্ত মেশিন বসানো হয়েছে। যার মাধ্যমে সাধারণ মানুষ চাইলেই রুটি, চা-
পাতি স্ক্রিনে সিলেক্ট করে পেতে পারবেন।
দুবাই সরকারের এ সিদ্ধান্তকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রবাসীরা।
মেশিন থেকে রুটি সংগ্রহ করতে কোনো টাকা লাগবে না। পরিবর্তে ক্রেডিট কার্ড
রিডার রয়েছে, যার মাধ্যমে যে কেউ অর্থ দান করতে পারে।
দুবাইয়ের পরিসংখ্যান দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর জুলাই মাস থেকে দুবাইয়ে
খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে ৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ এবং যাতায়াত ব্যয় বেড়েছে ৩৮
শতাংশ।
এ পরিস্থিতে দুবাইয়ের দরিদ্র লোকজন যেন বাড়তি ব্যয়জনিত ভোগান্তি এড়াতে
পারেন, সেজন্যই ‘বিনামূল্যে রুটি বিতরণ’ প্রকল্প শুরু করা হয়েছে। মূলত দুবাইয়ের
শাসক ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপ-প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল
মাকতুমের উদ্যোগেই শুরু হয়েছে এ প্রকল্প।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

দুবাইয়ে বিনামূল্যে রুটি বিতরণ শুরু

 ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে 
০২ অক্টোবর ২০২২, ০৩:০২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে বিনামূল্যে গরম রুটি বিতরণ
করা শুরু হয়েছে। জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় দুবাইয়ে এ ব্যবস্থা চালু করা
হয়েছে।
মরুভূমির দেশ দুবাই তার প্রায় সব খাদ্যপণ্যই বিদেশ থেকে আমদানি করে। রাশিয়া-
ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে পুরো পৃথিবীতেই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় দরিদ্র অভিবাসীদের
জন্য এমন উদ্যোগ গ্রহণ করল দুবাইয়ের সরকার।
সংবাদ সূত্রে জানা যায়, গত এক সপ্তাহে সুপার মার্কেটগুলোতে মোট ১০টি টাচস্ক্রিন
কম্পিউটারযুক্ত মেশিন বসানো হয়েছে। যার মাধ্যমে সাধারণ মানুষ চাইলেই রুটি, চা-
পাতি স্ক্রিনে সিলেক্ট করে পেতে পারবেন।
দুবাই সরকারের এ সিদ্ধান্তকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রবাসীরা।
মেশিন থেকে রুটি সংগ্রহ করতে কোনো টাকা লাগবে না। পরিবর্তে ক্রেডিট কার্ড
রিডার রয়েছে, যার মাধ্যমে যে কেউ অর্থ দান করতে পারে।
দুবাইয়ের পরিসংখ্যান দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর জুলাই মাস থেকে দুবাইয়ে
খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে ৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ এবং যাতায়াত ব্যয় বেড়েছে ৩৮
শতাংশ।
এ পরিস্থিতে দুবাইয়ের দরিদ্র লোকজন যেন বাড়তি ব্যয়জনিত ভোগান্তি এড়াতে
পারেন, সেজন্যই ‘বিনামূল্যে রুটি বিতরণ’ প্রকল্প শুরু করা হয়েছে। মূলত দুবাইয়ের
শাসক ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপ-প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল
মাকতুমের উদ্যোগেই শুরু হয়েছে এ প্রকল্প।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন