বাহরাইনে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গোৎসব
jugantor
বাহরাইনে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গোৎসব

  স্বপন মজুমদার, বাহরাইন থেকে  

০৭ অক্টোবর ২০২২, ০১:১৭:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট বাহরাইন শাখার উদ্যোগে আয়োজিত শারদীয় দুর্গোৎসব।

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বাহরাইন প্রবাসী বাংলাভাষী সম্প্রদায় পালন করেন এ অনুষ্ঠানটি। দেশটির হামালায় রুমি সুইমিংপুলের হলরুমে (১ অক্টোবর) রাত ৯টায় স্থাপিত অস্থায়ী মণ্ডপে এ পূজার আয়োজন করা হয়।

বাহরাইনে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি হিন্দুদের সংগঠন বাহরাইন নাঈম শাখার উদ্যোগে ও বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সার্বিক সহযোগিতায় ৫ বছর ধরে বাহরাইনে এ পূজার আয়োজন করে আসছে।

পূজার আয়োজনের জন্য পূজা কমিটিকে সহায়তা করেন বাহরাইনের বাংলাদেশ দূতাবাসসহ স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠনগুলো।

আয়োজকদের মধ্যে ছিলেন- পূজা কমিটির সভাপতি অভিনাশ পাল, পূজা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা সুকুমার যিশু, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট বাহরাইন শাখার সভাপতি বকুল সূত্রধর, পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাবু দুলাল দাশ, হিন্দু মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুপদ দেব, হিন্দু মহাজোটের সাংগঠনিক সম্পাদক বিধান মজুমদারসহ সংগঠনের নেতারা।

এর আগে মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্বালন ও মহাষষ্ঠী পূজার মাধ্যমে, ৫ দিনব্যাপী পূজার শুভসূচনা করা হয়। পুরোহিত ছিলেন শ্রী রাজীব চক্রবর্তী ও শ্রী প্রদীপ ভট্টাচার্য।

শনিবার দেবীর মহাদশমী বিহিতপূজা অনুষ্ঠিত হয়। এর পরপরই বিবাহিত হিন্দু নারীরা দেবীর চরণ থেকে সিঁদুর তোলা ও একে অপরকে পরিয়ে দেয় এবং মঙ্গল কামনা করে এর সাথে চলে শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময়। পরে মিষ্টি দিয়ে বিদায় জানানো হয় মাতৃ প্রতিমাকে। প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হয়েছে ৫ দিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

বাহরাইনে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গোৎসব

 স্বপন মজুমদার, বাহরাইন থেকে 
০৭ অক্টোবর ২০২২, ০১:১৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট বাহরাইন শাখার উদ্যোগে আয়োজিত শারদীয় দুর্গোৎসব।

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বাহরাইন প্রবাসী বাংলাভাষী সম্প্রদায় পালন করেন এ অনুষ্ঠানটি। দেশটির হামালায় রুমি সুইমিংপুলের হলরুমে (১ অক্টোবর) রাত ৯টায় স্থাপিত অস্থায়ী মণ্ডপে এ পূজার আয়োজন করা হয়।

বাহরাইনে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি হিন্দুদের সংগঠন বাহরাইন নাঈম শাখার উদ্যোগে ও বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সার্বিক সহযোগিতায় ৫ বছর ধরে বাহরাইনে এ পূজার আয়োজন করে আসছে।

পূজার আয়োজনের জন্য পূজা কমিটিকে সহায়তা করেন বাহরাইনের বাংলাদেশ দূতাবাসসহ স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠনগুলো।

আয়োজকদের মধ্যে ছিলেন- পূজা কমিটির সভাপতি অভিনাশ পাল, পূজা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা সুকুমার যিশু, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট বাহরাইন শাখার সভাপতি বকুল সূত্রধর, পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাবু দুলাল দাশ, হিন্দু মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুপদ দেব, হিন্দু মহাজোটের সাংগঠনিক সম্পাদক বিধান মজুমদারসহ সংগঠনের নেতারা।

এর আগে মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্বালন ও মহাষষ্ঠী পূজার মাধ্যমে, ৫ দিনব্যাপী পূজার শুভসূচনা করা হয়। পুরোহিত ছিলেন শ্রী রাজীব চক্রবর্তী ও শ্রী প্রদীপ ভট্টাচার্য।

শনিবার দেবীর মহাদশমী বিহিতপূজা অনুষ্ঠিত হয়। এর পরপরই বিবাহিত হিন্দু নারীরা দেবীর চরণ থেকে সিঁদুর তোলা ও একে অপরকে পরিয়ে দেয় এবং মঙ্গল কামনা করে এর সাথে চলে শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময়। পরে মিষ্টি দিয়ে বিদায় জানানো হয় মাতৃ প্রতিমাকে। প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হয়েছে ৫ দিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন