দুই ভাগে বিভক্ত গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন স্পেন
jugantor
দুই ভাগে বিভক্ত গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন স্পেন

  কবির আল মাহমুদ, স্পেন থেকে  

০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৫:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

অনিয়ম আর অন্তর্দ্বন্দ্বের ফলে কমিটি গঠনের ছয় মাসের মাথায় দুই ভাগে বিভক্ত হলো স্পেনের বৃহত্তর আঞ্চলিক সংগঠন গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন।

স্পেনে বসবাসরত বৃহত্তর সিলেটের সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ মৌলভীবাজার এবং সিলেট জেলা নিয়ে গঠিত বৃহত্তর সিলেটবাসীর এ সংগঠনের কমিটি গঠন নিয়ে অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে সাবেক ও বর্তমান কমিটির সদস্যদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

মূলত পদ-পদবি আর অর্থ তসরুপের ঘটনা থাকলে তা কখনো প্রকাশ্যে আসেনি। আর এসব ঘটনা চরম আকার ধারণ করে গত ২৯ মে নতুন কমিটি হওয়ার পর।

গত ৩০ নভেম্বর মাদ্রিদের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অপমান ও লাঞ্ছনার অভিযোগ এনে গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন থেকে দুই জন সহ-সভাপতি ও একজন যুগ্ম সম্পাদকসহ ৮ জন পদত্যাগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পেশ করেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবির রিগ্যান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আব্দুল মালিক এমদাদ, বেলাল আহমদ, প্রথম সদস্য রমিজ উদ্দিন, প্রবীণ রাজনীতিবিদ আব্দুল কাইয়ুম সেলিম প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে হুমায়ুন কবির রিগান বলেন, ২০০০ সালে স্পেনে বসবাসরত বৃহত্তর সিলেটবাসীকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্য নিয়ে মাদ্রিদে গ্রেটার সিলেট জালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ সংগঠনটি প্রতি ২ বছর পর ইলেকশন কিংবা সিলেকশনে হয় নতুন কমিটি।

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে প্রায় ৪ বছর কমিটিবিহীন থাকার পর মুজাক্কির সেলিম আসাদ পরিষদ পূর্ণ প্যানেল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়। নতুন কমিটি গঠিত হওয়ার পর উপদেষ্টা কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে মূলত এ বিভক্তি।

তিনি বলেন, নতুন সভাপতি আব্দুল মুত্তাকিন মুজাক্কির ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আলমের মনগড়া সিদ্ধান্তে তাদের মনোনীত ব্যক্তিদের নিয়ে নতুন উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়; যা সম্পূর্ণ সংগঠনের নীতিবহির্ভূত।

অথচ নির্বাচিত কমিটি গঠন হওয়ার সাবেক কমিটির কাছ থেকে পাওয়া সংগ্রহকৃত অর্থ সংরক্ষণের জন্য একটি যৌথ অ্যাকাউন্ট খোলার কথা। সেটা না করে তাদের অবৈধ ফায়দা হাসিলের জন্য তড়িঘড়ি করে এ উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়েছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

দুই ভাগে বিভক্ত গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন স্পেন

 কবির আল মাহমুদ, স্পেন থেকে 
০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অনিয়ম আর অন্তর্দ্বন্দ্বের ফলে কমিটি গঠনের ছয় মাসের মাথায় দুই ভাগে বিভক্ত হলো স্পেনের বৃহত্তর আঞ্চলিক সংগঠন গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন।

স্পেনে বসবাসরত বৃহত্তর সিলেটের সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ মৌলভীবাজার এবং সিলেট জেলা নিয়ে গঠিত বৃহত্তর সিলেটবাসীর এ সংগঠনের কমিটি গঠন নিয়ে অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে সাবেক ও বর্তমান কমিটির সদস্যদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

মূলত পদ-পদবি আর অর্থ তসরুপের ঘটনা থাকলে তা কখনো প্রকাশ্যে আসেনি। আর এসব ঘটনা চরম আকার ধারণ করে গত ২৯ মে নতুন কমিটি হওয়ার পর।

গত ৩০ নভেম্বর মাদ্রিদের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অপমান ও লাঞ্ছনার অভিযোগ এনে গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন থেকে দুই জন সহ-সভাপতি ও একজন যুগ্ম সম্পাদকসহ ৮ জন পদত্যাগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পেশ করেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবির রিগ্যান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আব্দুল মালিক এমদাদ, বেলাল আহমদ, প্রথম সদস্য রমিজ উদ্দিন, প্রবীণ রাজনীতিবিদ আব্দুল কাইয়ুম সেলিম প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে হুমায়ুন কবির রিগান বলেন, ২০০০ সালে স্পেনে বসবাসরত বৃহত্তর সিলেটবাসীকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্য নিয়ে মাদ্রিদে গ্রেটার সিলেট জালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ সংগঠনটি প্রতি ২ বছর পর ইলেকশন কিংবা সিলেকশনে হয় নতুন কমিটি।

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে প্রায় ৪ বছর কমিটিবিহীন থাকার পর মুজাক্কির সেলিম আসাদ পরিষদ পূর্ণ প্যানেল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়। নতুন কমিটি গঠিত হওয়ার পর উপদেষ্টা কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে মূলত এ বিভক্তি।

তিনি বলেন, নতুন সভাপতি আব্দুল মুত্তাকিন মুজাক্কির ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আলমের মনগড়া সিদ্ধান্তে তাদের মনোনীত ব্যক্তিদের নিয়ে নতুন উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়; যা সম্পূর্ণ সংগঠনের নীতিবহির্ভূত।

অথচ নির্বাচিত কমিটি গঠন হওয়ার সাবেক কমিটির কাছ থেকে পাওয়া সংগ্রহকৃত অর্থ সংরক্ষণের জন্য একটি যৌথ অ্যাকাউন্ট খোলার কথা। সেটা না করে তাদের অবৈধ ফায়দা হাসিলের জন্য তড়িঘড়ি করে এ উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়েছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন