জেদ্দায় বাংলাদেশের হজযাত্রীদের অভ্যর্থনা

  সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব থেকে ১৫ জুলাই ২০১৮, ১৪:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

অভ্যর্থনা

সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশের হজযাত্রীদের বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের প্রথম ফ্লাইটটি অবতরণের পর হজযাত্রীদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়।

বাংলাদেশের হজযাত্রীদের অভ্যর্থনা জানান রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ, কনসাল জেনারেল এফএম বোরহান উদ্দিন, বাংলাদেশ হজ মিশন মক্কার কাউন্সিলর মাকসুদুর রহমান, সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে ডেপুটি মিনিস্টার হজ ও ওমরাহ ড. আব্দুল ফাত্তাহ মুসাইদ, ডিজি হজ জেদ্দা ইঞ্জি. মরোয়ান সোলাইমানি, চেয়ারম্যান মোয়াছাচা ড. রাফাত ইসমাইল বদর, ইউনাইটেড এজেন্সি চেয়ারম্যান ড. ফারুক বোখারীসহ সৌদি হজ মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ মিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

হজযাত্রীদের শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে খেজুর, জায়নামাজ, ছাতি ও তসবিহ তুলে দেয়া হয়।

এবারের হজে সৌদি হজ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী সব হজযাত্রীর পাসপোর্টের পেছনের অংশে মক্কা ও মদিনার ছবি থাকায় হোটেলের ঠিকানাসংবলিত স্টিকার লাগানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

এ বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ হজযাত্রী পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরব আসবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ জন, আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫২৮টি হজ এজেন্সি হজের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এদিকে হজযাত্রী পরিবহনে তিন বছরের অভিজ্ঞতা না থাকলে কোনো এয়ারলাইনস কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবে না, এমন নিষেধাজ্ঞায় বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ বিমান। তাদের লিজ নেয়া দুটি বিমানই নিষেজ্ঞায় পড়েছে। তার পরও এখন পর্যন্ত কোনো সংকট নেই হজ ফ্লাইট নিয়ে।

চলতি হজ মৌসুমে সৌদি আরবে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের হজ ব্যবস্থাপনায় সহায়তার জন্য ৫১ সদস্যবিশিষ্ট হজ প্রশাসনিক দল-২০১৮ গঠন করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসনিক টিমের সদস্যদের তিনটি উপ-দলে নির্বাচিত করা হয়েছে। তারা জেদ্দা, মক্কা, মদিনা, মিনা, আরাফা ও মুজদালিফায় দায়িত্ব পালন করবেন।

নিয়োগপ্রাপ্ত তিন কর্মকর্তার মধ্যে এবিএম আমিন উল্লাহ নূরী মদিনায় ও মো. সাখাওয়াত হোসেন জেদ্দায় তিন মাস করে এবং মো. জহিরুল ইসলাম চার মাস মক্কায় দায়িত্ব পালন করবেন।

সৌদি আরবে অসুস্থ বাংলাদেশি হজযাত্রীদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য ১২১ সদস্যের হজ সহায়ক দল এবং ডাক্তার, নার্স, ফার্মাসিস্ট ও টেকনোলজিস্টদের নিয়ে গঠিত ২৩৭ সদস্যের হজ মেডিকেল টিম গঠন করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

ঢাকা থেকে হজের শেষ ফ্লাইট ছেড়ে আসবে ১৫ আগস্ট। আর পবিত্র হজ পালন শেষে ২৭ আগস্ট থেকে প্রথম ফিরতি হজ ফ্লাইট শুরু হবে। বাংলাদেশ বিমান ১৮৭টি ফ্লাইটে ৬৪ হাজার ৯৬৭ জন এবং সাউদিয়া এয়ারলাইনস ৬১ হাজার ৮৩১ হজযাত্রী পরিবহন করবে। এরই মধ্যে সরকারি-বেসরকারি মিলে এখন পর্যন্ত ৩১ হাজার ১৯ জনের হজ ভিসা হয়েছে। ঢাকার সৌদি দূতাবাসে ভিসার জন্য পাসপোর্ট জমা আছে ৫০ হাজারের মতো।

১৪ জুলাই বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে ৪১৯ যাত্রী নিয়ে বিমানের প্রথম ফ্লাইট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের জেদ্দায় রওনা হয়। ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান ও বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহাজান কামাল বিমানবন্দরে উদ্বোধনী ফ্লাইটে হজযাত্রীদের বিদায় জানান।

উল্লেখ্য, বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ থেকে হজ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

চট্টগ্রাম ও সিলেট থেকেও এ বছর বিমানের যথাক্রমে ৯টি ও তিনটি হজ ফ্লাইট পরিচালিত হবে। [প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ঘটনাপ্রবাহ : হজ ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×