ঘনিষ্ঠ জেনারেলের ঘাড়ে খাসোগি হত্যার দায় চাপালেন সৌদি যুবরাজ

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

ঘনিষ্ঠ জেনারেলের ঘাড়ে খাসোগি হত্যার দায় চাপালেন সৌদি যুবরাজ
ডোনাল্ড ট্রাম্প ও মোহাম্মদ বিন সালমান। ছবি: গার্ডিয়ান

সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান মার্কিন চাপে নতি স্বীকার করে সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিহত হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। কিন্তু তাকে হত্যার দায় নিজের সবচেয়ে বিশ্বস্ত ও ঘনিষ্ঠ জেনারেল আহমেদ আল আসিরির ওপর চাপিয়ে দিয়েছেন।

যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কাছের লোক আসিরি ও দেশটির গোয়েন্দা বাহিনীর উপ প্রধানকে এরমধ্যে বরখাস্ত করা হয়েছে। বিমান বাহিনীর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আসিরি যুবরাজের আস্থাভাজন হওয়ার আগে এক বছরেরও বেশি সময় ইয়েমেন যুদ্ধে তিনি ছিলেন সৌদি মুখপাত্র।

রাষ্ট্রীয় গোপনীয় স্পর্শকাতরও তথ্যও তিনি জানতেন বলে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে।

এদিকে তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিহতের ঘটনায় তোলাপাড়ের মধ্যে রিয়াদে আগামী সপ্তাহের বাণিজ্যিক সম্মেলন বয়কটের হিড়িক পড়েছে।

এতে সৌদি আরবে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক ঝুঁকি সৃষ্টির পাশাপাশি অর্থনীতিকেও গভীর সংকটের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

আগামী ২৩ থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত এ সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু তার আগেই সম্মেলন বর্জনের ঘোষণা দিচ্ছেন পশ্চিমা দেশগুলোর মন্ত্রীরা।

তাদের সঙ্গে আরো কয়েকজন রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়িক নেতাও সম্মেলন বয়কট করছেন।

খাসোগি নিখোঁজ কিংবা খুনের ঘটনার পেছনে সৌদি আরব জড়িত থাকতে পারে বলে অভিযোগের মুখে দেশগুলো এ পদক্ষেপ নিচ্ছে।

এতে সৌদি আরবে বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হওয়া তো দূরের কথা বরং বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সম্পর্কই ঝুঁকিতে পড়েছে।

গত ২ অক্টোবরে তুরস্কে ইস্তানম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পর নিখোঁজ রয়েছেন সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি।

পরে কনস্যুলেটের মধ্যেই তাকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে রিয়াদ। দেশটির প্রধান কৌঁসুলি এক বিবৃতিতে বলেন, সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে তুরস্কের ইস্তানম্বুলে কনস্যুলেটের মধ্যেই হত্যা করা হয়েছে।

একই সঙ্গে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে বহিষ্কার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দেশটির গোয়েন্দা বিভাগের উপপ্রধান আহমাদ আল-আসসিরি ও যুবরাজ সালমানের নিরাপত্তারক্ষী সৌদ আল-কাহতানিকে বহিষ্কার করা হয়।

সৌদি সরকারের টেলিভিশনের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য দেয়া হয়েছে।

সৌদি টেলিভিশনে দেয়া ওই বিবৃতির বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি কনস্যুলেটে দেখা করতে যাওয়া কয়েকজনের সঙ্গে খাশোগির লড়াই হয়ে। এর কিছু পরেই খাশোগির মৃত্যু হয়।

যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড এ ঘটনাকে অপ্রত্যাশিত বলে মন্তব্য করেছেন। পাশাপাশি সৌদিকে অনেক বড় বন্ধু বলেও দাবি করেছেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter