স্বাধীকার আন্দোলনের মূর্তপ্রতীক বনে যাওয়া সেই ফিলিস্তিনি যুবক

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ অক্টোবর ২০১৮, ০৭:২১ | অনলাইন সংস্করণ

স্বাধীকার আন্দোলনের মূর্তপ্রতীক বনে যাওয়া সেই ফিলিস্তিনি যুবক
স্বাধীকার আন্দোলনের মূর্তপ্রতীক বনে যাওয়া ফিলিস্তিনি যুবক আয়েদ আবু আমরো

দখলদার বর্বর উন্মত্ত সশস্ত্র ইসরাইলি সেনাদের সামনে খালি গায়ে, উদ্যত ভঙ্গিতে অকুতভয় এক ফিলিস্তিনি যুবক- তার এক হাতে ফিলিস্তিনি পতাকা, আরেক হাতে পাথর ছোঁড়ার স্লিং।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ছবির কল্যাণে ২০ বছর বয়সী আয়েদ আবু আমরো নামে বীর ফিলিস্তিনি যুবক স্বাধীকার আন্দোলনের মূর্তপ্রতীকে পরিনত হয়েছেন।

দখলকৃত গাজায় সোমবার গাজায়, ইসরায়েল সীমান্তের কাছে ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভের সময় আলজাজিরার ফটোসাংবাদিক মুস্তাফা হাসোনার তোলা ছবিটি নিয়ে ভার্চুয়াল জগতে চর্চা কম হচ্ছে না। খবর বিবিসির।

লন্ডনের সোয়াস বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর লালেহ খলিলি ছবিটা ইউটারে শেয়ার করেন মঙ্গলবার। শুধু তার টুইটই ৩০ হাজারের বেশি বার রি-টুইট হয়েছে। 'লাইক' পেয়েছে ৮০ হাজার।

অনেকেই সাহসী এ তরুণের বিপ্লবী ছবিটি তুলনা করেছেন বিখ্যাত চিত্রকর ইউজিন দেলাক্রোয়ার আঁকা ফরাসী বিপ্লবভিত্তিক ছবি 'লিবার্টি লিডিং দ্য পিপল'-এর সঙ্গে।

ভাইরাল হওয়া ছবিটি ব্যাপকভাবে শেযার হয়েছে অনলাইনে। এর পর আলজাজিরা টিভি ছবির এ যুবকটিকে খুঁজে বের করেছে। তার নাম আয়েদ আবু আমরো।

টিভি চ্যানেলটিকে আবু আমরো বলেন, আমার ছবিটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে জেনে আমি খুবই অবাক হয়েছি।

তিনি বলেন, আমি প্রতি সপ্তাহেই বিক্ষোভে যোগ দিই, কখনো কখনো তারও বেশি বার। আমি জানতামও না আমার কাছে কোন ফটোগ্রাফার ছিল।

প্রতিবারই বিক্ষোভের সময় এই পতাকাটা আমি সঙ্গে নিয়ে গেছি। এটি আমার সাহস ও প্রেরণার উৎস।

আমার বন্ধুরা আমাকে নিয়ে হাসাহাসি করে বলে, তোমার এক হাতে পতাকা না থাকলে পাথর ছোঁড়া আরো সহজ হবে। কিন্তু আমার অভ্যাস হয়ে গেছে।

এ বছরের গত মার্চ মাস থেকে গাজা-ইসরাইল সীমান্তে প্রতি সপ্তাহে ফিলিস্তিনিদের এ বিক্ষোভ হচ্ছে। এতে এ পর্যন্ত ইসরায়েলি সৈন্যদের গুলিতে নিরস্ত্র স্বাধীনতাকামী ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন দুই শতাধিক।

দেলাক্রোয়ার বিখ্যাত ছবি 'লিবার্টি লিডিং দ্য পিপল'

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×