শ্রীলংকায় প্রেসিডেন্টের চেয়ার ধরে টানাটানি, ভিডিও ভাইরাল

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:১৫ | অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার পার্লামেন্টে হাতাহাতি
শ্রীলংকার পার্লামেন্টে হাতাহাতি। ছবি: সংগৃহীত

শ্রীলংকায় এবার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনার চেয়ার ধরে এবার টানাটানি শুরু হয়েছে।

পার্লামেন্টে তারই নিয়োগ দেয়া প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসেকে অনাস্থা ভোটে ভরাডুবি করেছেন রনিল বিক্রমাসিংহে।

নির্বাচনের ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই আগাম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ডাক দিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর কলম্বোয় ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) বিক্ষোভ সমাবেশে এ ডাক দেন বহিষ্কৃত প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহে।

এর আগে আগাম জাতীয় নির্বাচনের ডাক দিয়েছিলেন সিরিসেনা। এদিন সকালে ‘প্রধানমন্ত্রী পদ’ নিয়ে পার্লামেন্টের ভেতরে হাতাহাতি, ফাইল চালাচালিতে জড়িয়ে পড়েন রাজাপাকসে ও বিক্রমাসিংহে দলের এমপিরা। এতে আহত হয়েছেন কয়েকজন।

এক এমপিকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। লজ্জাজনক এ পরিস্থিতিতে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত পার্লামেন্ট স্থগিত ঘোষণা করেন স্পিকার কারু জয়াসুরিয়া।

২৬ অক্টোবর ক্ষমতার দ্বন্দ্বে বিক্রমাসিংহকে সরিয়ে রাজাপাকসেকে প্রধানমন্ত্রী পদে বসান সিরিসেনা। তিনি পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে ৫ জানুয়ারি আগাম নির্বাচনের ডাক দিলে সংকট আরও ঘনীভূত হয়।

রাজনৈতিক দলগুলো সুপ্রিমকোর্টে সিরিসেনার সিদ্ধান্তের বৈধতায় চ্যালেঞ্জ জানায়। মঙ্গলবার সর্বোচ্চ আদালত প্রেসিডেন্টের ডিক্রিতে স্থগিতাদেশ দিয়ে পার্লামেন্ট চালুর ঘোষণা দেন।

বুধবার পার্লামেন্ট অধিবেশনে রাজাপাকসের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোটে ১২২ এমপি সমর্থন দেন। এতে প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভা শূন্য হয়ে পড়ে শ্রীলংকা। তবে অনাস্থা ভোট প্রত্যাখ্যান করেছেন সিরিসেনা।

বৃহস্পতিবার স্পিকার পার্লামেন্টে এসেই ঘোষণা দেন, শ্রীলংকায় এখন কোনো প্রধানমন্ত্রী কিংবা মন্ত্রিপরিষদ নেই। রাজাপাকসেকে সংসদ সদস্য হিসেবে বক্তব্য দেয়ার অনুমতি দেন স্পিকার জয়সুরিয়া।

স্পিকারের এ ঘোষণার পর রাজাপাকসের অনুগত এমপিরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। তারা বিক্রমাসিংহে সমর্থিত এমপিদের সঙ্গে হাতাহাতি শুরু করেন। তাদের দিকে ফাইলপত্র ছুড়তে থাকেন। অনেককে আঙুল উঁচিয়ে শাসাতেও দেখা গেছে।

বেশ কয়েকজনকে ঘুষি ছুড়তে দেখা গেছে। এ সময় স্পিকারকে লক্ষ্য করে এক এমপি ওয়েটপেপার (কাগজ চাপা দেয়ার পাথর) ছুড়ে মারেন। একপর্যায়ে কয়েকজন মেঝেতে পড়ে গেলে বিরোধীরা তাদের লাথি মারেন।

স্পিকারের মাইক্রোফোন ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে রাজাপাকসে দলের এমপি দিলমু আমুনুগামা জখম হন। আধা ঘণ্টা ধরে চলে এ মারামারি। সূত্র : এএফপি ও শ্রীলংকা গার্ডিয়ান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×