ইতিহাস গড়লেন আসামের মঞ্জু বড়ুয়া

  যুগান্তর ডেস্ক ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:২৭ | অনলাইন সংস্করণ

ইতিহাস গড়লেন আসামের মঞ্জু বড়ুয়া

ভারতীয় উপমহাদেশে চা বাগানের ২০০ বছরের ইতিহাসে মঞ্জু বড়ুয়া (৪৭) নামে এক নারী প্রথমবারের মতো বাগানের ম্যানেজারের পদে নিয়োগ পেয়েছেন।

চা বাগানগুলোতে উচ্চপদে এতদিন কাজ করেছেন শুধু পুরুষরাই। নারী শ্রমিকরা এখনও পাতা সংগ্রহের মতো কঠিন পরিশ্রমের বেশিরভাগ কাজগুলোই করেন। খবর বিবিসির।

মঞ্জু বড়ুয়া কাগজের বিজ্ঞাপন দেখে আবেদন করেছিলেন শ্রমিক কল্যাণ অফিসার হওয়ার জন্য। কাজে যোগ দেয়ার পর এ বাগানেই গত ১৮ বছর ধরে কাজ করছেন। একেবারে তৃণমূল স্তরে শ্রমিক কর্মচারীদের সঙ্গে মিশেছেন।

বহুদিনের ওই প্রথা ভেঙে এবার এক নারী দায়িত্ব নিয়েছেন চা বাগানের প্রধানের। ম্যানেজারের পদে বসেছেন মঞ্জু বড়ুয়া।

৬৩৩ হেক্টরেরও বেশি জায়গাজুড়ে থাকা বাগানটির আনাচে-কানাচে মোটরবাইক বা সাইকেল অথবা জিপে চেপে ঘুরে বেড়ানোর কাজ তার।

মঞ্জু বড়ুয়া বলেন, চা বাগানের দায়দায়িত্ব সামলানো একজন নারীর জন্য কঠিন হলেও অসম্ভব কোনো কাজ নয়।

আসাম বা উত্তরবঙ্গের চা বাগানগুলোতে ম্যানেজারদের সম্বোধন করা হয় বড় সাহেব বলে। একসময়ে ব্রিটিশরাই ওই পদে আসীন হতেন, তাই এ সম্বোধন।

এখন মঞ্জু বড়ুয়া ম্যানেজারের পদে আসীন হওয়ার পর আসামের তিনসুকিয়া জেলার হিলিকা চা বাগানের শ্রমিক-কর্মচারীরা অভ্যস্ত হচ্ছেন তাকে বড় ম্যাডাম বলতে।

গানের প্রধান হিসাবে শ্রমিক-কর্মচারীরা এত বছর ধরে বা একজন পুরুষকেই দেখে অভ্যস্ত। কিন্তু নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সব শ্রমিকের সঙ্গে কাজ করার সুবাদে তার একটি গ্রহণযোগ্যতা আগে থেকেই তৈরি হয়ে গিয়েছিল। তাই নারী হিসেবে বড় কোনো চ্যালেঞ্জের মুখে এখনও পড়তে হয়নি।

আসামের শিবসাগর জেলার একটি ছোট এলাকা নাজিরার মেয়ে মঞ্জু। চা বাগানে কাজ করবেন, এ রকম স্বপ্ন কম বয়সে দেখেননি।

চেয়েছিলেন ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিসে যোগ দেবেন। কিন্তু বাবার অবসরের পর প্রয়োজন ছিল চাকরির। তখনই কাগজের বিজ্ঞাপন দেখে চা বাগানের শ্রমিক কল্যাণ অফিসারের কাজে যোগ দেন।

বাগানের বাংলোতেই থাকেন মঞ্জু বড়ুয়া তার স্বামী আর ১১ বছরের কন্যাকে নিয়ে। ভোর থেকে বাগানের কাজ শুরু হয়ে যায়, একই সঙ্গে তার ছোটাছুটিও।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×