যেভাবে খাশোগির হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা হ্যাকারদের হাতে

  যুগান্তর ডেস্ক ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

সাংবাদিক জামাল খাসোগি
সাংবাদিক জামাল খাসোগি। ফাইল ছবি

জামাল খাশোগি সম্ভবত ভেবেছিলেন, তিনি তার অনুসারী সৌদি নির্বাসিত ওমর আবদুল আজিজের কাছে যেসব বার্তা পাঠাচ্ছিলেন, সেগুলো হোয়াটসঅ্যাপ নিরাপত্তার কারণে লুকানো ছিল।

বাস্তবিক অর্থে গুপ্তচরবৃত্তির জন্য আবদুল আজিজের ফোনটি পেগাসাস নামক একটি ম্যালওয়ার দ্বারা সংক্রামিত করা হয়েছিল।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে আবদুল আজিজ ওই পেগাসাসের কোম্পানি এনএসও গ্রুপের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করে অত্যাচারী শাসকদের কাছে এটি বিক্রি করার জন্য মামলা করেন।

মামলার এজাহারে তিনি উল্লেখ করেন, এ প্রযুক্তি ব্যবহার করে সৌদি সরকার তার বন্ধু জামাল খাশোগিকে হত্যা করেছে এবং তার পরিবারকেও সৌদি আরবে নানাভাবে হয়রানি করছে।

মামলার পর ইসরাইলি প্রতিষ্ঠানটি দাবি করে, তারা সৌদি আরবের কাছে ফোনে আড়িপাতার ওই প্রযুক্তি বিক্রি করেনি।

এ ছাড়া খাশোগি হত্যার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততার বিষয়ে অস্বীকার করেছে তারা। তারা দাবি করেছে, তাদের সফটওয়্যার শুধু সন্ত্রাসবাদ ও অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য তৈরি করা হয়েছে।

কিন্তু আবদুল আজিজ দাবি করেন, ২০১৭ সালে সৌদি সরকার ও ইসরাইলি প্রতিষ্ঠানটির মধ্যে ওই প্রযুক্তি বিক্রির জন্য ৫৫ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি হয়, যা ওই সময় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে।

সফটওয়্যারটি এতটাই শক্তিশালী যে, এক ক্লিকেই সচল হয়ে যাবে ফোনটিতে। এর পর হ্যাকারদের পুরো কন্ট্রোলে চলে আসবে ফোনটি। এটিতে ইচ্ছেমতো তারা প্রবেশ করতে পারবে।

ফোনের কথা, বার্তা, তথ্য- এমনকি ওই ফোনের অবস্থানও সঠিকভাবে জানতে পারবেন হ্যাকাররা। এ ছাড়া কে তার সঙ্গে কথা বলছে তাও জানা যাবে এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে।

সিটিজেন ল্যাব কর্মকর্তারা জানান, খাশোগির ক্ষেত্রেও এটি ঘটেছে। কারণ খাশোগি আবদুল আজিজকে যে বার্তা পাঠিয়েছিলেন, সেই বার্তা আবদুল আজিজ দেখার আগেই হ্যাকারদের হাতে চলে যায়।

ঘটনাপ্রবাহ : সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজ

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×