ভারতে জাকির নায়েকের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

  যুগান্তর ডেস্ক    ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

জাকির নায়েক
ইসলামিক বক্তা জাকির নায়েক। ফাইল ছবি

ভারতে ইসলামিক বক্তা জাকির নায়েকের ফের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অর্থপাচার মামলায় মুম্বাই ও পুনেতে ১৬ কোটি ৪ লাখ কোটি রুপির চারটি ফ্ল্যাটের ওপর আদালত কর্তৃক ক্রোক নির্দেশ দেওয়া হয়।

অর্থ পাচার মামলায় এ নিয়ে তৃতীয় দফায় জাকির নায়েকের সম্পত্তি ক্রোক করার নির্দেশ এল। নতুন এ স্থাবর সম্পত্তিসহ সব মিলিয়ে ৫০ কোটি টাকার সম্পত্তির ওপর ক্রোক নির্দেশনা দেওয়া হয়।

শনিবার ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট (ইডি) জানায়, অর্থ পাচার আইনে তার সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

২০১৬ সালে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে বেআইনি কার্যক্রমের অভিযোগ করা হয়, অন্য ধর্ম নিয়ে তার ‘উত্তেজনাকর বক্তব্য’ মানুষকে জঙ্গি সংগঠনে অনুপ্রাণিত করছে। এছাড়া বিভিন্ন উৎস থেকে অর্থ আসছে এমন অভিযোগও করা হয়।

এ নিয়ে ভারতীয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট (ইডি) জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ১২০ কোটি রুপির মানি লন্ডারিংয়ের মামলা দায়ের করে।

এতে বলা হয়, বিভিন্ন অজানা ও সন্দেহজনক উৎস থেকে দুবাই অ্যাকাউন্টে এসব অর্থ আসে। যেগুলো ভারত থেকে গ্রহণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অর্থ পাচার ও উগ্রপন্থাকে উসকে দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিল ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। একই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় তার প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইআরএফ) ও পিস টিভি।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব অ্যাকাউন্ট ও সম্পত্তি শনাক্ত করার জন্য ভারতীয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট (ইডি) থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত চিঠির কোনো সাড়া মেলেনি।

এসব কারণে ২০১৬ সালের ১ জুলাই ভারত ছেড়ে যেতে বাধ্য হন জাকির নায়েক। ভারতে মামলা হওয়ার পর জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় আশ্রয় চান। সেসময় তাকে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয় তৎকালীন নাজিব রাজাক সরকার। এরপর থেকে তিনি মালয়েশিয়ার পুত্রজায়া শহরে বসবাস করে আসছেন। সেখানে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ইসলামিক বক্তব্য রাখছেন।

২০০৬ সালে জাকির নায়েক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন পিস টিভি। বিশ্বজুড়ে তাদের ২০ কোটি দর্শকসংখ্যা রয়েছে বলে পিস টিভি জানায়।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×