বিয়ের আসর ছেড়ে ফুটবল খেলতে গেলেন বর!

  যুগান্তর ডেস্ক ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:২৫:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

হবু বধুর সঙ্গে ফুটবলার রিডবান। ছবি: সংগৃহীত

১৯৯৯ সালের মে মাসের ২৩ তারিখের কথা। বাবাকে হারানোর ৪ দিনের মাথায় খেলতে নেমেছিলেন ক্রিকেটের লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকার।

আর সেদিনই তার ব্যাট থেকে আসে মহাকাব্যিক শতরান। সেদিন ব্যাট ও মাথা উঁচিয়ে শতরান যেন প্রয়াত বাবাকে উৎসর্গ করেছিলেন শচীন।

ক্রীড়া জগতের অবিস্মরণীয় এই দৃষ্টান্তের মতো না হলেও সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালা রাজ্যে।

তবে সেটা ক্রিকেট নয় ফুটবলের কাহিনী।

এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, বিয়ের আসর থেকে হবু বধু থেকে অনুমতি নিয়ে ফুটবল খেলতে মাঠে নেমে গিয়েছিলেন বর।

ফুটবলে আসক্ত রিডবান নামের ওই ছেলে প্রথমে জানতেন না যে, তার বিয়ের দিনই ম্যাচ খেলতে ডাক আসবে কোচ থেকে।

স্থানীয় মল্লপুরম ক্লাবের হয়ে খেলতে হবে তাকে। তবে তিনি খেলবেন কিনা এটা তার ইচ্ছাধীন বলে জানিয়েছিলেন কোচ।

কিন্তু ফুটবলার রিডবান বিয়ে নয় ফুটবলকেই প্রাধান্য দিলেন।

তিনি হবু জীবনসঙ্গীকে গিয়ে বলেন, ‘আমি ৫ মিনিটে আসছি, এসেই বিয়ে করব’।

ব্যস যেই বলা সেই কাজ, বর বেশ পাল্টে গায়ে চড়ালেন জার্সি, সু খুলে পরলেন বুট।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, ফুটবল ও বিয়ে দুটোই হয়েছিল রিডবানের। আর সেই ম্যাচ জিতেই ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন এই তরুণ ফুটবলার।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে এ খবর প্রকাশ হলে বিষয়টি কেরালার কেন্দ্রীয় যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠৌর জানতে পারেন।

তিনি ওই ফুটবলারের সঙ্গে দেখা দেখা করতে চেয়ে টুইট করে লিখেন, বিয়ে কেরালার ফুটবলারের খেলা ঠেকাতে পারল না।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত