এবার ভারতজুড়ে আক্রান্ত কাশ্মীরের লোকজন

  যুগান্তর ডেস্ক ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

এবার ভারতজুড়ে আক্রান্ত কাশ্মীরের লোকজন
ছবি: সংগৃহীত

পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলায় আধাসামরিক বাহিনীর ৪৪ জওয়ান নিহত হওয়ার পর ভারতজুড়ে কাশ্মীরিদের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় তারা হামলার শিকার হয়েছেন। বাড়ি থেকেও বের করে দেয়া হয়েছে।

তবে তাদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।-খবর এনডিটিভির

হামলার বিরুদ্ধে কাশ্মীরে হরতাল পালিত হয়েছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, জম্মু ও কাশ্মীরের অধিবাসীদের কাছ থেকে হয়রানি ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উত্তরখণ্ডের দেরাদুনে স্থানীয় বিভিন্ন বাড়িতে ভাড়া থাকেন বেশ কিছু কাশ্মীরি ছাত্র। এ হামলার পর বাড়িওয়ালা তাদের ঘর ছেড়ে চলে যেতে বলেছেন।

বিহার ও হরিয়ানা থেকেও একই ধরনের হয়রানির খবর পাওয়া গেছে।

পাটনার কাশ্মীরি দোকানদার বশির আহমেদ বলেন, একদল সংঘবদ্ধ লোক তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। লাঠিসোঁটা হাতে একটি দল এসে আমার দোকানের সামনে জড়ো হন। তারা কাশ্মীরের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। এমনকি তখনও আমি হামলার ঘটনা সম্পর্কে জানতাম না।

এ দোকানি বলেন, তারা আমার দোকান ভাঙচুর করে মালামাল নষ্ট করে দেয়। এরপর আমাকে ও দোকানের কর্মীদের বেধরক মারধর করে।

‘গত ৩৫ বছর ধরে আমি পাটনায় দোকানদারি করছি। এতগুলো বছরে কখনো বৈষম্য কিংবা কোনো সমস্যার মুখোমুখি হইনি। রাজনীতির সঙ্গে আমার কোনো যোগসাজশ নেই। এমনকি কখনো কখনো এতই ব্যস্ত থাকি যে খবর শোনারও সময় পাই না,’ বললেন বশির আহমেদ।

কারফিউ সত্ত্বেও জম্মুতে কয়েক ডজন গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। আক্রান্তরা বলেন, জম্মুর তাওয়াই অঞ্চলে সংঘবদ্ধ লোকজন যখন সম্পদ ধ্বংস ও কাশ্মীরিদের ওপর হামলা চালাচ্ছিল পুলিশ তখন অন্য দিকে তাকিয়ে রয়েছে।

সেখানকার সিভিল সেক্রেটারিয়েটে কর্মরত এক কর্মী বলেন, জনিপুরে নিজেদের আবাসিক এলাকায় তারা হামলার শিকার হয়েছেন। এতে কয়েক ডজন গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×