বিজেপিতে যোগ দেয়ায় গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড়!

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৩ মার্চ ২০১৯, ০১:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

গৌতম গম্ভীর
গৌতম গম্ভীর। ফাইল ছবি

ক্রিকেট ছেড়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি যোগ দিয়েছেন ভারতের সাবেক তারকা ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর। ভারতের সাবেক এ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান বিজেপির মতো হিন্দুত্ববাদী কট্টরপন্থী দলে যোগ দেয়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুকে চলছে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড়।

বাপী শিকারী নামের কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ফেসবুকে মন্তব্য করেন, ‘তাই বলি সালার ক দিন আগে দেশভক্তি উৎলে পড়ছিল।এখন দেখছি ওটা দেশভক্তি নয় বিজেপি ভক্তি।’

রিমি নামের এক ইন্টারিয়র ডিজাইনার মন্তব্য করেন, ‘ভালো মানুষ, উনি এতদিন ভালো কাজ করে এসেছেন এবং আগেও করবেন।’

চিরঞ্জিত পারৈ নামের একজন লেখেন, ‘প্রমোটারির ঘোটালা কেসে গৌতম গম্ভিরের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট জারি গত ১৮ ডিসেম্বর। বিজেপিতে জয়েন করলো গৌতম গম্ভির ২২ মার্চ ২০১৯।’

জয়ন্ত কুমার দে নামের একজন লেখেন, ‘খেলোয়াড় হিসেবে যেই সম্মান টা করতাম, ব্যক্তি গম্ভীরকে আর সেটা করা সম্ভব নয়! নির্বোধের মতো কাজ করলেন!’

এদিকে রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, নানা ইস্যুতে মোদির জনপ্রিয়তা এখন তলানিতে থাকায় সেলিব্রেটি ক্রিকেটারদের দলে টেনে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার চেষ্টা করছেন।

গম্ভীরের বিজেপিতে যোগ দেয়ার কারণ?

বিজেপিতে যোগ দেয়া নিয়ে নয়াদিল্লীতে জন্ম ও বেড়ে ওঠা ভারতীয় দলের সাবেক ওপেনার গম্ভীর বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রভাবশালী নেতৃত্ব আমার অনুপ্রেরণা। আর সেই অনুপ্রেরণায় অনুপ্রাণিত হয়েই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ভেবেছি। অরুণ জেটলি স্যার, রবিশংকর স্যরকে অনেক ধন্যবাদ আমাকে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য। আমি সব সময়ই দেশের সেবা করতে চেয়েছি। আশা করছি, দেশের জন্য কাজে নিজেকে উত্সর্গ করতে পারব।

জেটলির হয়ে ব্যর্থ হয়েছিলেন গম্ভীর

গম্ভীর এর আগেও ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে অরুণ জেটলির হয়ে প্রচারে নেমেছিলেন। যদিও সেবার ফল অরুণ জেটলির পক্ষে সুখকর হয়নি। নির্বাচনে অরুন জেটলিকে জেতাতে পারেননি তিনি। কংগ্রেসের অমরিন্দর সিংয়ের কাছে হেরেছিলেন জেটলি।

গম্ভীরের ঘনিষ্ঠমহলের দাবি, ক্রিকেট ও রাজনীতি একসঙ্গে চালাতে চাননি গম্ভীর। তাই ক্রিকেট থেকে অবসরের পরই রাজনীতিতে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

নয়াদিল্লী থেকেই নির্বাচনে লড়বেন গম্ভীর

নয়াদিল্লি থেকেই তিনি প্রার্থী হতে পারেন। বর্তমানের নয়াদিল্লির বর্তমান এমপি মীনাক্ষী লেখি। আর গম্ভীরের বাড়ি দিল্লিতে। ফলে স্থানীয় মানুষ হিসাবে জনগণের বিশ্বাস অর্জনে গম্ভীরের অ্যাডভান্টেজ বলে মনে করছে বিজেপি নেতৃত্ব।

ঘটনাপ্রবাহ : ভারতের জাতীয় নির্বাচন-২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×