যে গ্রামে সবাই একদিনেই কোটিপতি

  অনলাইন ডেস্ক ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

Village

ভারতের অরুণাচল প্রদেশ ও ভুটান সীমান্তের কাছে প্রত্যন্ত গ্রাম বোমজা। বৃহস্পতিবার ওই গ্রামের সব মানুষ কোটিপতি বনে গেছে। গ্রামটিকে আগে থেকেই ‘কোটিপতিদের গ্রাম’ বলা হতো। কিন্তু সেখানে ধনীদের পাশাপাশি প্রায় ২০০ ভূমিহীন দলিত পরিবার ছিল। তবে ভারতের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বোমজার শতভাগ পরিবারই এখন কোটিপতি।

চীন সীমান্তের কাছে তাওয়াংয়ে সেনাঘাঁটি মজবুত করার পরিকল্পনা সেনাবাহিনীর অনেক দিনের। ‘তাওয়াং গ্যারিসন’ তৈরির জন্য অনেক দিন ধরেই জমি চাইছিল সেনাবাহিনী। কিন্তু তাওয়াং চু নদীর পাশে, ভুটান সীমান্তের দিক থেকে তৃতীয় গ্রাম বোমজার বাসিন্দারা জমি দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। কারণ বোমজার বাসিন্দাদের কাছে পাহাড়, জমি ‘পবিত্র সম্পদ’। তবে প্রশাসন তাদের বোঝাতে শুরু করে, পাহাড়ের মালিকানা ধরে রেখে মনে শান্তি থাকলেও আয় হচ্ছে না। তাই প্রায় ২০০ একর জমি দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে দিয়ে দেয়াই ভালো। ভালো দাম পাওয়া যাবে।

তাওয়াংয়ের জেলা শাসক সাং ফুন্টসক বলেন, প্রায় ছয় বছর আলাপ-আলোচনার পর শেষ পর্যন্ত রাজি হয়েছে বোমজাবাসী। প্রতিরক্ষামন্ত্রী জমি অধিগ্রহণ ও ক্ষতিপূরণ প্যাকেজ মঞ্জুর করেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী তথা তাওয়াংয়ের ভূমিপুত্র পেমা খান্ডু নিজের কেন্দ্র মুক্তোয় বোমজা গ্রামের ৩১টি পরিবারের হাতে মোট ৪০ কোটি ৮০ লাখ ৩৮ হাজার ৪০০ রুপির চেক তুলে দেন। পরে গ্রামের ২৯টি পরিবারের মধ্যে সমান ১ কোটি ৯ লাখ ৩ হাজার ৮১৩ রুপির চেক প্রদান করা হয়। একটি পরিবার পেয়েছে ২ কোটি ৪৪ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮৬ রুপি। সবচেয়ে বেশি জমির মালিক পেয়েছেন ৬ কোটি ৭৩ লাখ ২৯ হাজার ৯২৫ রুপি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter