ক্রাইস্টচার্চের হত্যাকাণ্ড মুসলমান অভিবাসনের পরিণতি: অস্ট্রেলীয় সিনেটর

  যুগান্তর ডেস্ক ০৩ এপ্রিল ২০১৯, ১২:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

ক্রাইস্টচার্চের হত্যাকাণ্ড মুসলমান অভিবাসনের পরিণতি: অস্ট্রেলীয় সিনেটর
ছবি: এএফপি

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ব্যাপক হত্যাকাণ্ড মুসলমান অভিবাসনের পরিণতি হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার একজন উগ্রডানপন্থী সিনেটর। তবে তার এ মন্তব্য ঘিরে দেশটির পার্লামেন্ট সদস্যরা আপত্তি তুলেছেন।-খবর এএফপির

ফ্রেসার অ্যানিং নামের ওই সিনেটর নিজের দৃষ্টিভঙ্গির জন্য ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করেছেন। দেশটির বড় ও ছোট দলগুলোর রাজনীতিবিদদের একটি দল কুইন্সল্যান্ডের এ সিনেটরের মন্তব্যে সেন্সর আরোপ করতে সিনেটের উচ্চকক্ষে কণ্ঠভোটের আয়োজন করেন।

সিনেটের রক্ষণশীল লিবারেল-ন্যাশনাল সরকারের নেতা ম্যাথিয়াস কোরম্যান বলেন, ফ্রেসার আনিংয়ের মন্তব্য কুৎসিত ও বিভক্তি সৃষ্টিকারী। যেকোনো কারও জন্য তারা ভয়ঙ্কর ও অগ্রণযোগ্য। সিনেটের এই এক ব্যক্তির ক্ষেত্রেই এমনটি প্রযোজ্য।

সিনেটের বিরোধীদলীয় নেতা লেবার পার্টির পেন্নি ওয়াং বলেন, বিদ্বেষ প্রচার ও উগ্রমতাদর্শের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান পরিষ্কার করতেই এ সেন্সর আরোপের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, যারা অসহনীয়তা ও ঘৃণা ছড়াতে চাচ্ছেন এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে নস্যাৎ করতে চেষ্টা করছেন, আমাদের অবশ্যই তাদের ত্যাজ্য করতে হবে।

তার মতে, বাকস্বাধীনতা ও বিদ্বেষ প্রচারের মধ্যে সুস্পষ্ট ফারাক আছে। বাকস্বাধীনতা আমাদের গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্য আর ঘৃণার প্রচার হচ্ছে গণতন্ত্রের ওপর হামলা।

২০১৭ সালে আনুপাতিক ভোটিং ব্যবস্থায় বিজয়ী হয়ে সিনেট সদস্য হন ফ্রেসার আনিং।

ঘটনাপ্রবাহ : নিউজিল্যান্ডে মসজিদে এলোপাতাড়ি গুলি

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×