‌‌‘গোলান ফেরত দিয়ে সিরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক চেয়েছিল ইসরাইল’

প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

ছবি: সংগৃহীত

অধিকৃত গোলান মালভূমি ফেরত দেয়ার বিনিময়ে সিরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করতে চেয়েছিল ইসরাইল বলে জানিয়েছেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারক।

কায়রো টোয়েন্টিফোরকে দেয়া সাক্ষাৎকারে টেলিভিশন উপস্থাপক আহমেদ আল সাঈদ জানিয়েছেন, সাবেক মিসরীয় প্রেসিডেন্ট তাকে বলেছেন- গোলান মালভূমি উদ্ধারে তিনি ইসরাইলিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু এর বিনিময়ে তারা দামেস্কে দূতাবাস খুলতে চেয়েছিল। কিন্তু একজন সিরীয় ইসরাইলি ভূমিতে পা রাখার অর্থ হচ্ছে- ইসরাইলকে একপ্রকারে স্বীকৃতি দেয়া।

হোসনি মোবারক জানিয়েছেন, তবে সিরিয়ার তখনকার প্রেসিডেন্ট হাফিজ আল আসাদ ইসরাইলের সেই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। এর ফলেই গোলানে ইসরাইলি সার্বভৌমত্বে স্বীকৃতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

রোববার স্থানীয় টেলিভিশন আল হায়াত আল সাঈদের সঙ্গে মোবারকের সাক্ষাৎকারের অডিও হাতে পাওয়ার কথা জানিয়েছে। কিন্তু অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির আশঙ্কায় তাদের কথোপকথন সম্প্রচার করেনি টেলিভিশন চ্যানেলটি।

এই পাহাড়ি মালভূমিটি ১৯৬৭ সালে সিরিয়ার কাছ থেকে দখল করে নেয় অবৈধ ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইল। পরে ১৯৮১ সালে নিজ ভূখণ্ডের অন্তর্ভুক্ত করে নিলেও এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া আর কোনো দেশের স্বীকৃতি মেলেনি।