বাবরি মসজিদ ধ্বংসে অংশ নিয়ে আমি গর্বিত: বিজেপি প্রার্থী

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

ছবি: এনডিটিভি

বাবরী মসজিদে ভেঙে ফেলাকে সমর্থন করে একটি টেলিভিশনে বক্তব্য দেয়ায় ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী প্রজ্ঞা ঠাকুরকে নোটিশ দিয়েছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। টিভি৯-কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর যারা বাবরি মসজিদটি ভাঙায় অংশ নিয়েছিলেন, আমিও তাদের একজন। কাজেই মসজিদ ভাঙায় নিজের অংশগ্রহণ নিয়ে আমি গর্ব করছি।-খবর এনডিটিভির

মধ্যপ্রদেশের ভোপাল থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন এই বিজেপি প্রার্থী। তিনি বলেন, আমরা দেশে থেকে একটি কলঙ্ক মুছে দিয়েছি। বাবরি মসজিদ ধ্বংস করে দিয়েছি। ঈশ্বর যে আমাদের সেই সুযোগ করে দিয়েছেন, সেজন্য নিজে গর্ববোধ করছি। আমরা নিশ্চিত করতে বলতে চাই, ওখানে রামমন্দির নির্মাণ করা হবে।

এরপরে ক্ষমতাসীন বিজেপি তাদের এই রাজনীতিবিদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস।

বিরোধী দলটির মুখপাত্র মানাক আগারওয়াল বলেন, বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীর এ বিষয়টি পরিষ্কার করা উচিত। কারণ তারা সবসময় বলে আসছিল, এ ঘটনা আদালতের বিষয়। কাজেই এ ব্যাপারে তারা কিছু বলতে পারবে না। আমি মনে করি, এই মন্তব্যকারী ব্যক্তি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার যোগ্য না।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন ইতিমধ্যে তাকে নোটিশ দিয়েছে। এখন প্রধানমন্ত্রী মোদিকে বিষয়টি পরিষ্কার করতে হবে কিংবা দুঃখ প্রকাশ করতে হবে।

এর তিন দিন আগে প্রজ্ঞা ঠাকুর বলেন, তার অভিশাপের কারণেই ২৬/১১ হিরো হেমন্ত কারকারি ২০০৮ সালের মুম্বাই সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন। কারণ মেলগাওন বিস্ফোরণ মামলায় এই সাবেক সরকারি কৌঁসুলি আমাকে নির্যাতন করেছিলেন।

প্রজ্ঞা বলেন, হেমন্ত কারকারি দেশ ও ধর্মবিরোধী। আপনি এটা বিশ্বাস করবেন না, কিন্তু আমি বলেছি, তিনি ধ্বংস হয়ে যাবেন। এর কিছুদিন পরেই সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যা করেছেন।