পাথর ছোড়ার শাস্তি চোখ ও হাত বেঁধে দুই পায়ে গুলি

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

পাথর ছোড়ার শাস্তি চোখ ও হাত বেঁধে দুই পায়ে গুলি
ছবি: সিএনএন

বিশৃঙ্খলার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর তার চোখ বেঁধে ফেলা হয়। হাতও বাঁধা হয় পিছমোড়া করে। এর পর নির্মমভাবে গুলি করা হয়েছে ফিলিস্তিনি কিশোর আল বাদানকে।

গত বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিমতীরের বেথেলহেমের তুকু গ্রামে একটি দাফন অনুষ্ঠানের পর ইসরাইলি সেনারা এই নির্মমতা চালান।-খবর সিএনএনের

ফটো ও ভিডিওতে দেখা যায়, ১৫ বছর বয়সী ওসামা আল বাদানের হাত পিছমোড়া করে বাঁধা। তার কাছে দাঁড়িয়ে থাকা অন্তত চার ইসরাইলি সেনার কাছ থেকে সে পালাতে চেষ্টা করছিল।

তার বাবা আলী আল বাদান বলেন, বাদানের প্রতিটি পায়ে একটি করে গুলি করা হয়েছে।

‘তার কোনো অপরাধ ছিল না। তবু তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইহুদি সেনারা তার বিরুদ্ধে পাথর নিক্ষেপের অভিযোগ করেন। কিন্তু আমি জানি, সে এমনটি করেনি।’

যদি সে পাথর মেরেও থাকে, গুলি করে হত্যা কি তার শাস্তি হতে পারে, প্রশ্ন আলীর।

সেদিন তুকু গ্রামের এক স্কুলশিক্ষক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। তার জানাজায় প্রচুর লোকসমাগম হয়েছিল। দাফনের পর ইসরাইলি সেনাদের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সংঘাত ছড়িয়ে পড়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, গুলি করার পর ওসামা আল বাদানকে আটক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×