শ্রীলংকায় মুসলিমদের ওপর হামলার পর কারফিউ, গ্রেফতার ৬০

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ মে ২০১৯, ১৪:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকায় মুসলিমদের ওপর হামলার পর কারফিউ, গ্রেফতার ৬০

শ্রীলংকার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশে দ্বিতীয় দিনের মতো মসজিদ ও মুসলিমদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা হয়েছে। মুসলিমবিরোধী দাঙ্গায় নিহত হয়েছেন একজন।

সোমবার এসব ঘটনার সময় পুলিশ উচ্ছৃঙ্খল জনতাকে লক্ষ্য করে কাঁদুনে গ্যাস নিক্ষেপ করে। পরে কর্তৃপক্ষ দেশজুড়ে রাতব্যাপী কারফিউ জারি করে।

খ্রিস্টানদের ইস্টার সানডেতে জঙ্গিদের আত্মঘাতী বোমা হামলার পর থেকে দ্বীপ দেশটিতে এটিই সবচেয়ে বড় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা।

২১ এপ্রিল শ্রীলংকায় কয়েকটি হোটেল ও গির্জা লক্ষ্য করে চালানো ওই হামলায় ২৫৩ জন নিহত হন। এর পর থেকেই দেশটির সংখ্যালঘু মুসলিমদের বিরুদ্ধে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছিল।

হামলার পর থেকেই দেশটিতে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এর মধ্যেই দেশজুড়ে মুসলিমবিরোধী সহিংসতা শুরু হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে মুসলিমদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মসজিদকে আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। এ পর্যন্ত সহিংসতায় একজন মারা গেছে বলে স্থানীয় পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

সহিংসতা শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে চরমপন্থী বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের এক দাঙ্গাবাজ নেতাও রয়েছেন।

শ্রীলংকার বিভিন্ন শহরে দাঙ্গাকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছুড়েছে।

মঙ্গলবার থেকে দেশটিতে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ যেখানে সহিংসতা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে, সেখানে কারফিউ আরও দীর্ঘ সময় ধরে জারি থাকবে।

দেশের সবাইকে শান্ত থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে। উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতির কারণে গত মাসের ভয়াবহ ওই হামলার তদন্তকাজ ব্যাহত হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

শ্রীলংকার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত শহর কিনিয়ামায় একটি মসজিদের দরজা-জানালা ভাঙচুর করেছে আক্রমণকারীরা।

এ ছাড়া মুসলিমদের ধর্মগ্রন্থ কোরআনের কয়েকটি কপিও মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। মসজিদের ভবনে তল্লাশির দাবি জানিয়ে জনতা সেখানে পুলিশি অভিযানের দাবি জানালে এক পর্যায়ে সেখানে হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, ফেসবুকে এক ব্যক্তির দেয়া বিতর্কিত একটি পোস্টের পর খ্রিস্টানপ্রধান শহর চিলৌতে মুসলিমদের কিছু দোকান ও মসজিদে আক্রমণের ঘটনা ঘটে।

পরে ফেসবুকে পোস্ট দেয়া ৩৮ বছর বয়সী ওই মুসলিম ব্যবসায়ীকে খুঁজে বের করে গ্রেফতার করা হয়।

উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশের মারাউয়িলি হাসপাতাল থেকে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দাঙ্গাবাজদের হামলায় ছুরিকাহত ৪২ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় এক বাসিন্দা যিনি ছুরিকাহত ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিতে সাহায্য করেছেন, তিনি জানান, নিহতের নাম মোহাম্মদ আমির মোহাম্মদ সালি।

ঘটনাপ্রবাহ : শ্রীলংকায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ হামলা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×