শিগগিরই এস-৫০০ ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করা হবে: এরদোগান

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ মে ২০১৯, ১৫:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান
রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। ছবি: সংগৃহীত

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, ইতিমধ্যে রাশিয়ার কাছে থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয়ের চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই রাশিয়া সঙ্গে যৌথভাবে এস-৫০০ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা তৈরি করা হবে।

শনিবার ইস্তানবুলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক টেলিভিশন প্রশ্ন-উত্তর পর্বে তিনি এ কথা বলেন।

রাশিয়ার কাছে থেকে তুরস্কের এস-৪০০ কেনার চুক্তি নিয়ে ইতোমধ্যেই আঙ্কারার সঙ্গে ওয়াশিংটনের উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

রাশিয়ার কাছ থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্র কিনলে তুরস্কের বিরুদ্ধে অবরোধ দেয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এ বিষয়ে এরদোগান বলেন, তুরস্কের এস-৪০০ কেনা থেকে ফিরে আসার কোনো সম্ভাবনাই নেই। এ ব্যাপারে চুক্তি হয়ে গেছে। আর শিগগিরই যৌথভাবে এস-৫০০ ক্ষেপনাস্ত্র তৈরি করা হবে।

বিমানবিধ্বংসী এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্রকে নিজেদের যুদ্ধবিমানের জন্য হুমকি বলে মনে করছে যুক্তরাষ্ট্র। বিশেষ করে নিজেদের এফ-৩৫ বিমানের জন্য ক্ষেপণাস্ত্রটি প্রধান হুমকি বলে মনে করছে তারা।

এরদোগান বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিডফিল্ডের কাছাকাছি বলটি পাস করছে। কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি হোক বা পরে হোক, আমরা যখন এফ-৩৫ হাতে পাব, তখন আর তাদের (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র) কোনো বিকল্প সুযোগ দেয়া হবে না।

রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্রটি একই সঙ্গে ৮০টি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। তুরস্কের ক্ষেপণাস্ত্র কেনা নিয়ে উত্তেজনার কারণে এরই মধ্যে দেশটির সঙ্গে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান-সংক্রান্ত কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্র চায় রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের বদলে তুরস্ক তাদের প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয় করুক।

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-তুরস্ক এস-৪০০ বিতর্ক

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×