লোকসভায় বলিউডের প্রার্থীদের হার-জিত

  যুগান্তর ডেস্ক ২৩ মে ২০১৯, ২৩:৪৯ | অনলাইন সংস্করণ

লোকসভায় বলিউডের প্রার্থীদের হার-জিত
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে হারিয়ে যিনি জয়ী হতে যাচ্ছেন, সেই শ্রীমতি ইরানি একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। গত চার দশক ধরে আমেথি থেকে জয়ী হয়ে আসছেন গান্ধী পরিবারের প্রার্থীরা।

হিন্দি ধারাবাহিক কিউ কি সাঁস ভি কাভি বহু থির তুলসি খ্যাত শ্রীমতি ইরানি বিজেপিতে যোগ দিয়ে মন্ত্রীও হয়েছেন।

আর বলিউড তারকা শত্রুঘ্ন সিনহা বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়ে বিহারের পাটনা সাহিব আসনে প্রার্থী হলেও তাকে আগের দলের কাছেই হারতে হচ্ছে।

তার স্ত্রী পুনম সিনহাও উত্তরপ্রদেশের লক্ষ্ণৌ থেকে সমাজবাদী পার্টির টিকিট নিলেও সুবিধা করতে পারেননি ।

এদিকে বিজেপির বিপুল জয়ের মধ্যেও হারতে চলেছেন বিজেপি প্রার্থী বলিউডের আরেক তারকা জয়াপ্রদা। তাকে হারতে হচ্ছে পুরনো দল সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীর কাছে।

উত্তর প্রদেশের ফতেহপুর সিকরি থেকে নির্বাচন করে কংগ্রেসের ভরাডুবিতে বাড়তি যোগ হচ্ছেন রাজ বাব্বর।

মহারাষ্ট্রের মুম্বাই উত্তরে কংগ্রেসের টিকিট নিয়েছিলেন রঙ্গিলা তারকা উর্মিলা মাতন্ডকার। এই আসনে হারতে যাচ্ছেন তিনিও। সঞ্জয় দত্তের বোন প্রিয়া দত্তও পাঞ্জা প্রতীকের প্রার্থী হয়ে হেরেছেন।

কংগ্রেসের পাঞ্জা প্রতীক নিয়ে ভোটে নামা অধিকাংশ তারকারা হারতে চলেছেন। তবে বিজেপির টিকেট যারা নিয়েছেন, তাদের মধ্যে জয়াপ্রদা বাদে অন্য সবাই জয়ের দিকে এগোচ্ছেন।

বিজেপির হয়ে জিততে যাচ্ছেন অভিনেত্রী কিরণ খেরও। আর অভিনেত্রী কাম পরিচালক হেমা মালিনি উত্তর প্রদেশের মাথুরা থেকে বিজয়ী হয়েছেন।

হেমা মালিনির অভিনেতা স্বামী ধর্মেন্দ্র প্রচারে যোগ দেয়ায় তার নির্বাচনী লড়াই নতুন মাত্রা পেয়েছে। হেমা বলেন, গত পাঁচ বছরে একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি বহু কাজ করেছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : ভারতের জাতীয় নির্বাচন-২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×