তেরেসার প্রতি আমার কিছুটা সহানুভূতি আছে: সাদিক খান

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ মে ২০১৯, ১৭:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

তেরেসার প্রতি আমার কিছুটা সহানুভূতি আছে: সাদিক খান
ছবি: সংগৃহীত

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেছেন, তেরেসা মে’র সঙ্গে অনেক ক্ষেত্রে আমি একমত না, তবে আজকে তার প্রতি আমার কিছুটা সহানুভূতি রয়েছে।-বিবিসি অনলাইনের

শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, তার প্রচণ্ড কঠিন কর্মস্থলকে কনজারভেটিভ পার্টির উগ্র বেক্সিটপন্থীরা আরও অসম্ভব করে তুলেছেন।

‘কাজেই সেই একই ব্যক্তিদের মাধ্যমে ব্রিটেনের ভবিষ্যৎ নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেয়া পুরোপুরি অগ্রণযোগ্য।’

তিনি বলেন, আমি আর্টিকেল ৫০ বাতিল চাই। যার অর্থ হচ্ছে, ব্রেক্সিট বাতিল ঘোষণা করা।

ব্রেক্সিট চুক্তিতে এমপির সমর্থন আদায়ে ব্যর্থ হওয়ায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা বলেছেন, আগামী ৭ জুন তিনি কনজারভেটিভ নেতার পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন।

এর মাধ্যমে তার তিন বছরের প্রধানমন্ত্রিত্বের অবসান ঘটবে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান।

শুক্রবার ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, এটা সবসময় আমার জন্য অনুশোচনার বিষয় হয়ে থাকবে যে আমি ব্রেক্সিট সম্পন্ন করতে পারিনি।

ব্যাকবেঞ্চ ১৯২২ কমিটির প্রধান গ্রাহাম ব্রাডলির সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি এ ঘোষণা দেন। তেরেসা পদত্যাগে অস্বীকার জানালে ওই কমিটির তার বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

তার এ পদত্যাগের ঘটনায় দলটিতে নতুন করে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা শুরু হবে। মে বলেন, ৭ জুন কনজারভেটিভ পার্টি ও ইউনিওনিস্ট পার্টির প্রধান থেকে আমি পদত্যাগ করবো।

তিনি বলেন, নতুন নেতৃত্ব বাছাইয়ের প্রক্রিয়া আসছে সপ্তাহে শুরু হবে। এতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যেতে পারে বলে এএফপির খবরে বলা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ব্রেক্সিট ইস্যু

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×