মক্কা সম্মেলনে কাতারকে আমন্ত্রণ কিসের আভাস?

  যুগান্তর ডেস্ক ৩০ মে ২০১৯, ১৯:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

মক্কা সম্মেলনে কাতারকে আমন্ত্রণ কিসের আভাস?
ছবি: সংগৃহীত

ইরানের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যেই সৌদি আরবের পবিত্র শহর মক্কায় দুই দিনের জরুরি বৈঠকে অংশ নিতে আরব নেতারা জড়ো হয়েছেন।

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ওই বৈঠকে প্রতিবেশী কাতারকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। অথচ বছর দুয়েক আগে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর উপসাগরীয় এই ছোট্ট দেশটির বিরুদ্ধে আকাশ ও নৌপথে অবরোধ আরোপ করেছিল।-খবর সিএনবিসি নিউজের

সৌদি আরবের আমন্ত্রণপত্র গ্রহণ করেছে কাতার। এর মধ্য দিয়ে ২০১৭ সালের জুনের পর এই প্রথম কোনো কাতারি বিমান সৌদি আরবে অবতরণ করেছে।

লন্ডনের কিং কলেজের স্কুল অব সিকিউরিটি স্টাডিজের প্রভাষক অ্যান্ড্রুস ক্রেইগ সিএনবিসিকে বলেন, কাতারের আমিরের সঙ্গে সৌদি আরবের সরাসরি যোগাযোগ এই আভাস দিচ্ছে যে ইরানের সঙ্গে উত্তেজনা গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছে রিয়াদ।

তিনি বলেন, ইরানকে কীভাবে মোকাবেলা করা যায় তা নিয়ে প্রচলিত ঐক্যমতের চেয়েও আরও বড় পরিসর তৈরি করতে প্রস্তুত সৌদি আরব।

কিন্তু কাতার-জিসিসি সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই আভাস বড় কোনো সফলতা কিংবা অবরোধের অবসানের কোনো ইঙ্গিত দিচ্ছে কিনা, জানতে চাইলে আঞ্চলিক বিশেষজ্ঞরা হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, এখনই এমনটা বলা যাচ্ছে না।

র‌্যান্ড করপোরেশনের নীতি বিশ্লেষক ও আঞ্চলিক বিশেষজ্ঞ বেকা ওয়াসের বলেন, উপসাগরীয় বিচ্ছেদে বরফ গলার একটি ইতিবাচক ইঙ্গিত হচ্ছে কাতারি আমিরকে এই আমন্ত্রণ জানানো। কিন্তু এটাকে ফুলিয়ে ফাপিয়ে দেখার কোনো সুযোগ নেই।

দুই বৈরী দেশের মধ্যে সম্পর্ক বিনির্মাণের সম্ভাবনা নিয়ে একটু খোঁচাই মারলেন ওয়াশিংটন ডিসিভিত্তিক থিংক ট্যাংক গালফ স্টেট অ্যানালিটিকসের প্রতিষ্ঠাতা জর্জিও ক্যাফিরিও।

কাতারি গবেষক খালিদ আল জাবেরের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক ওয়েবসাইট লবলগে তিনি লিখেছেন, এই সম্মেলনের আলোচনা উপসাগরীয় সংকটের অবসানে একটি প্রস্তাবের দিকে যাবে, এমন ভাবা অপরিপক্ক হবে।

এই লেখকের মতে, এই সম্মেলনে কাতার আমন্ত্রণ পেলেও মূলত সৌদি আকাশে কাতারি বিমানের চলাচল নিষিদ্ধই থাকছে।

তিনি বলেন, গত ২৭ মে জেদ্দায় কাতারি বিমান অবতরণ করেছে কেবল আসন্ন মক্কা সম্মেলনকে সামনে রেখে। এতে সৌদি নীতিতে বড় কোনো পরিবর্তন আসছে বলে মনে হচ্ছে না।

ঘটনাপ্রবাহ : সৌদি-কাতার সংকট

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×