খাশোগির হত্যা নিয়ে তুরস্ককে সৌদি যুবরাজের হুশিয়ারি
jugantor
খাশোগির হত্যা নিয়ে তুরস্ককে সৌদি যুবরাজের হুশিয়ারি

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ জুন ২০১৯, ২১:০৫:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

খাশোগির হত্যা নিয়ে তুরস্ককে সৌদি যুবরাজের হুশিয়ারি

সৌদি রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক ও গুপ্তহত্যার শিকার সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডকে রাজনৈতিক উদ্দেশে ব্যবহার করা যাবে না বলে হুশিয়ারি করেছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

রোববারসৌদি আরবের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম আশ-শারকুল আওসাতকে দেয়া সাক্ষাৎকারে যুবরাজ এ মন্তব্য করেন।

সরাসরি তুরস্কের নাম না নিলেও খাশোগির হত্যা নিয়ে কয়েকটি দেশ রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন মোহাম্মদ বিন সালমান।

সাক্ষাতকারে বিন সালমান বলেন, খাশোগি হত্যার ঘটনাটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক। কিন্তু কেউ যদি এ নিয়ে রাজনৈতিক সুযোগ গ্রহণের চেষ্টা করে তাহলে তা বন্ধ হওয়া উচিত। এ বিষয়ে কারো কোনো বক্তব্য থাকলে তা সৌদি আরবের আদালতে প্রমাণ উপস্থাপন করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তান্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হন সাংবাদিক জামাল খাশোগি। খুনের নির্দেশদাতা হিসেবে আঙুল উঠে খোদ সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে। সৌদি আরবের পক্ষ থেকে প্রথমে এ হত্যাকাণ্ডের খবর অস্বীকার করা হয়। পরে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্বীকার করলেও এর সঙ্গে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সম্পৃক্ততার খবর অস্বীকার করা হয়।

ওই ঘটনায় দুনিয়াজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়েন সৌদি যুবরাজ। বর্তমানে ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে একদল সৌদি নিরাপত্তা কর্মীর বিচার চলছে। তুরস্কের মাটিতে খাশোগি খুন হয়েছেন বলে তুর্কি কর্মকর্তারা ঘাতক বাহিনীর সদস্যদের বিচারের জন্য আঙ্কারার হাতে সোপর্দ করার আহ্বান জানালেও সৌদি আরবের পক্ষ থেকে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

খাশোগির মৃতদেহ কোথায় রয়েছে তা স্পষ্ট করার জন্য সৌদি সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করে আসছে তুরস্ক।

খাশোগির হত্যা নিয়ে তুরস্ককে সৌদি যুবরাজের হুশিয়ারি

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ জুন ২০১৯, ০৯:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
খাশোগির হত্যা নিয়ে তুরস্ককে সৌদি যুবরাজের হুশিয়ারি
ছবি: সংগৃহীত

সৌদি রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক ও গুপ্তহত্যার শিকার সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডকে রাজনৈতিক উদ্দেশে ব্যবহার করা যাবে না বলে হুশিয়ারি করেছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।  

রোববার সৌদি আরবের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম আশ-শারকুল আওসাতকে দেয়া সাক্ষাৎকারে যুবরাজ এ মন্তব্য করেন।

সরাসরি তুরস্কের নাম না নিলেও খাশোগির হত্যা নিয়ে কয়েকটি দেশ রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন মোহাম্মদ বিন সালমান।  

সাক্ষাতকারে বিন সালমান বলেন, খাশোগি হত্যার ঘটনাটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক। কিন্তু কেউ যদি এ নিয়ে রাজনৈতিক সুযোগ গ্রহণের চেষ্টা করে তাহলে তা বন্ধ হওয়া উচিত।  এ বিষয়ে কারো কোনো বক্তব্য থাকলে তা সৌদি আরবের আদালতে প্রমাণ উপস্থাপন করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তান্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হন সাংবাদিক জামাল খাশোগি। খুনের নির্দেশদাতা হিসেবে আঙুল উঠে খোদ সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে। সৌদি আরবের পক্ষ থেকে প্রথমে এ হত্যাকাণ্ডের খবর অস্বীকার করা হয়। পরে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্বীকার করলেও এর সঙ্গে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সম্পৃক্ততার খবর অস্বীকার করা হয়।

ওই ঘটনায় দুনিয়াজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়েন সৌদি যুবরাজ। বর্তমানে ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে একদল সৌদি নিরাপত্তা কর্মীর বিচার চলছে। তুরস্কের মাটিতে খাশোগি খুন হয়েছেন বলে তুর্কি কর্মকর্তারা ঘাতক বাহিনীর সদস্যদের বিচারের জন্য আঙ্কারার হাতে সোপর্দ করার আহ্বান জানালেও সৌদি আরবের পক্ষ থেকে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

খাশোগির মৃতদেহ কোথায় রয়েছে তা স্পষ্ট করার জন্য সৌদি সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করে আসছে তুরস্ক।

 

ঘটনাপ্রবাহ : সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজ