আরব যুবকদের কাছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এরদোগান
jugantor
আরব যুবকদের কাছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এরদোগান

   

২৪ জুন ২০১৯, ২১:৩৪:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান আরব যুবকদের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা। সম্প্রতি বিবিসি অ্যারাবিকে একটি ভোটের জরিপের বরাত দিয়ে তুরস্কের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাক এ তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, আরব বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ২৫ হাজার যুবকের মতামত নেয়া হয়, যাদেরকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়।

প্রাপ্ত ফলাফল অনুসারে, প্রেসিডেন্ট এরদোগান র‌্যাংকিংয়ে প্রথম স্থানে রয়েছেন। আরব যুবকরা তার পক্ষে ইতিবাচক মন্তব্য করেন।

১১ দেশের মধ্যে জরিপে সাত দেশে এরদোগান প্রথম স্থান পান। এতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনুসরণ করা হয়।

১১ দেশের মধ্যে চালানো জরিপে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান ৫১ শতাংশ ভোট পান। তবে এরদোগানের ভাণ্ডারে সবচেয়ে বেশি ভোট পড়ে সুদান, জর্ডান ও ফিলিস্তিনিদের। এসব দেশে এরদোগানকে ৭৫ শতাংশ ভোট দেয়া হয়।

আরব দেশের এসব যুবকদের প্রশ্ন করা হয়, স্থায়ীভাবে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য কোন দেশ বেশি বড় হুমকি। এতে বেশিরভাগ যুবক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের চেয়ে বড় ঝুঁকিপূর্ণ মনে করেন ইসরাইলকে।

আরব যুবকদের কাছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এরদোগান

  
২৪ জুন ২০১৯, ০৯:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। ফাইল ছবি

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান আরব যুবকদের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা।  সম্প্রতি বিবিসি অ্যারাবিকে একটি ভোটের জরিপের বরাত দিয়ে তুরস্কের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাক এ তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, আরব বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ২৫ হাজার যুবকের মতামত নেয়া হয়, যাদেরকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। 

প্রাপ্ত ফলাফল অনুসারে, প্রেসিডেন্ট এরদোগান র‌্যাংকিংয়ে প্রথম স্থানে রয়েছেন।  আরব যুবকরা তার পক্ষে ইতিবাচক মন্তব্য করেন।

১১ দেশের মধ্যে জরিপে সাত দেশে এরদোগান প্রথম স্থান পান।  এতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনুসরণ করা হয়।

১১ দেশের মধ্যে চালানো জরিপে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান ৫১ শতাংশ ভোট পান।  তবে এরদোগানের ভাণ্ডারে সবচেয়ে বেশি ভোট পড়ে সুদান, জর্ডান ও ফিলিস্তিনিদের।  এসব দেশে এরদোগানকে ৭৫ শতাংশ ভোট দেয়া হয়।

আরব দেশের এসব যুবকদের প্রশ্ন করা হয়, স্থায়ীভাবে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য কোন দেশ বেশি বড় হুমকি।  এতে বেশিরভাগ যুবক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের চেয়ে বড় ঝুঁকিপূর্ণ মনে করেন ইসরাইলকে।