বিবিসি উর্দূর বিশ্লেষণ

ইরানে মার্কিন হামলা হলে যেসব সমস্যায় পড়বে পাকিস্তান

  লেখক: বেলাল কারিম মোগল ও ইমাদ খালিক; ভাষান্তর: তানজিল আমির ২৪ জুন ২০১৯, ২১:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

ইরানে মার্কিন হামলা হলে যেসব সমস্যায় পড়বে পাকিস্তান
ফাইল ছবি

গত বৃহস্পতিবার ইরান কর্তৃক মার্কিন সামরিক ড্রোন ভূপাতিত করার পর মধ্যপ্রাচ্যে ইরান এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে।

গুলি করে মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করার জবাবে গত শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও ইরানি লক্ষ্যবস্তুতে হামলার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু ট্রাম্পের ভাষ্যমতে, ব্যাপক প্রাণহানির আশঙ্কায় ওই নির্দেশের পরপরই তা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

যদিও যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, ইরানের আকাশসীমার ভেতরে নয়, আন্তর্জাতিক সীমানাতেই তাদের ড্রোনটি অবস্থান করছিল।

ওমান উপসাগরে তেল ট্যাংকারে হামলার পর থেকে দেশ দু’টির মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। সোমবার থেকে ইরানের বিরুদ্ধে নতুন করে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা জারি করছে যুক্তরাষ্ট্র।

যেহেতু পাকিস্তান ইরানের প্রতিবেশী দেশ। সে হিসেবে চলমান উত্তেজনা পাকিস্তানে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে কতটুকু প্রভাব ফেলবে?

এ বিষয়ে বিবিসি উর্দূ বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ওই প্রতিবেদনের আলোকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের এমন যুদ্ধাবস্থায় পাকিস্তানে কি কি প্রভাব পড়বে এবং এ ক্ষেত্রে পাকিস্তান কোন চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করতে হবে তা তুলে ধরা হলো-

আফগানিস্তানের শান্তি প্রক্রিয়া বিনষ্ট হবে

সম্ভাব্য হামলার পরিণতিতে আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের ওপর ইরান হামলা চালাতে পারে। এমন প্রেক্ষাপটে তালেবান ইরানকে সমর্থন জানায় কি না,সেটিই মূখ্য হয়ে ওঠবে।

যদি তালেবানরা ইরানকে সমর্থন দিয়ে বসে, তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানদের চলা শান্তি আলোচনা অনেকটাই ভেস্তে যাবে। বিষয়টি পাকিস্তানের জন্য নতুন সমস্যা সৃষ্টি করবে।

যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘে পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত আলি সারওয়ার নকী এ বিষয়ে বলেন, যে কোনো ধরণের সংঘাত পাকিস্তানের জন্য অনেক নতুন বিষয় দাঁড় করাবে। কারণ, যুদ্ধ যেখানেই হোক, পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতেও তা ব্যাপক প্রভাব ফেলে।

তিনি বলেন, আফগানিস্তানে এখনও সংঘাত চলছে। সেখানে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ গড়ে ওঠেনি। এমন পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান সংঘাতে জড়ালে আফগান ইস্যুটি গুরুত্বহীন হয়ে যাবে। যা পাকিস্তানের জন্য ব্যাপক আশঙ্কার বিষয়।

পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জ

ইরান-যুক্তরাষ্ট্র সংঘাতে পাকিস্তানে শরণার্থীবৃদ্ধির পাশাপাশি বিশ্লেষকরা অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্যও বিষয়টিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন।

নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও সামরিক ব্যক্তিত্য মোহাম্মদ আমের রানা মনে করেন, এমন পরিস্থিতিতে দেশের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি কয়েকভাবে প্রভাবিত হবে।

তিনি বলেন, পাকিস্তানে শিয়া সম্প্রদায়ের অনেক মানুষ রয়েছেন। সে হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র ইরানে হামলা চালালে এর কোনো প্রতিবাদ না করাটা এ বিশাল জনগোষ্ঠীর মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি করবে। বিপরীতে এমন প্রতিক্রিয়া সৌদি আরব, কুয়েতসহ আরব রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক অবনতি ঘটাতে পারে।

সে ক্ষেত্রে এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানানো বা না জানানো উভয়টিই পাকিস্তানের জন্য সংকট সৃষ্টি করবে।

এমন সংকটময় মুহূর্তে কৌশলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখাটাই হবে পাকিস্তানের জন্য চ্যালেঞ্জ বিষয়।

পাকিস্তানকে সমতা রক্ষা করে চলতে হবে

যেহেতু ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি এ সংঘাতে সৌদি আরবেরও সম্পৃক্ততা রয়েছে, সে হিসেবে যুদ্ধ বেধে গেলে সৌদি আরব অবশ্যই যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকবে।

আলি সরওয়ার নকী বলেন, পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় পলিসি হলো দুটি মুসলিম দেশ সংঘাতে জড়ালে তারা এককভাবে কোনো পক্ষকে সমর্থন দেয় না। এ নীতির কারণেই সৌদির আহ্বান সত্ত্বেও ইয়েমেনে পাকিস্তান সেনা পাঠায়নি। ইরাক-ইরান যুদ্ধেও পাকিস্তান কোনো পক্ষকে সমর্থন দেয়নি। বরং উভয় দেশের মধ্যে সমাধানের চেষ্টা করেছে।

আমের রানা বলেন, লেবাননের হিজবুল্লাহসহ ইরানের মিত্র যে দেশগুলো রয়েছে, ইরান তাদের এ যুদ্ধে সম্পৃক্ত করতে চাইবে। বিপরীতে সৌদি আরবও তার মিত্র দেশগুলোকে সহযোগিতার আহ্বান জানাবে। সে ক্ষেত্রে যুদ্ধের পরিধিও বাড়বে, জটিলতাও বাড়বে। কিন্তু পরিস্থিতি যত মারাত্মকই হোক, পাকিস্তানকে নিরপেক্ষ ভূমিকা নিতে হবে।

মূল লেখক: বেলাল কারিম মোগল ও ইমাদ খালিক, বিবিসি উর্দূর বিশেষ প্রতিবেদক

ভাষান্তর: তানজিল আমির

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×