ইয়েমেনে আমিরাতের খালি জায়গা পূরণ করছে সৌদি

  যুগান্তর ডেস্ক ১১ জুলাই ২০১৯, ২১:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

ইয়েমেনে আমিরাতের খালি জায়গা পূরণ করছে সৌদি
ছবি: সংগৃহীত

লোহিত সাগরের বিভিন্ন বন্দর ও বাব আল-মানদেব প্রণালীতে নিরাপত্তা জোরদারের দায়িত্ব নিয়েছে ইয়েমেনে অবস্থানরত সৌদি আরবের সামরিক বাহিনী।

এর আগে সৌদির ঘনিষ্ঠ মিত্র আরব আমিরাত এসব কৌশলগত জলপথে নিজেদের উপস্থিতি কমিয়ে দিয়েছে।

এ সংশ্লিষ্ট চারটি সূত্রের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে। ইয়েমেনের বেশ কিছু অংশে সেনাবাহিনীর উপস্থিতির সংখ্যা কমিয়ে নিয়েছে আরব আমিরাত।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে গত চার বছর ধরে চলা বহু স্তরের যুদ্ধে বড় বড় সেনা ঘাঁটি স্থাপন করেছে আরব আমিরাত। এটাকে দুই আঞ্চলিক বৈরী দেশ সৌদি আরব ও ইরানের ছায়াযুদ্ধ হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

দুই ইয়েমেনি সামরিক কমান্ডার ও দুই কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, আল মক্কা ও আল খোক্কা বন্দরের সামরিক ঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন সৌদি কর্মকর্তারা।

এ দুটি বন্দর থেকে হোদাইদার কাছাকাছি সামরিক অভিযান ও উপকূলীয় অঞ্চল পর্যবেক্ষণে আমিরাতের বাহিনী তাদের সহায়তা করতো।

দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর নগরি এডেন ও পেরিম দ্বীপে অনির্দিষ্ট সংখ্যক সেনা পাঠিয়েছে সৌদি আরব।

কৌশলগত বাব আল-মানদেবে অবস্থিত পেরিম দ্বীপটিকে বলা হয় একটি ছোট্ট আগ্নেয় শিলা। যেখানে এডেন উপসাগরের সঙ্গে লোহিত সাগর মিলিত হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে রয়টার্সের প্রশ্নে সাড়া দেয়নি সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ও আরব আমিরাত সরকার।

আরব আমিরাতের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, প্রায় ৯০ হাজার যোদ্ধাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে আরব আমিরাত।

‘কাজেই ইয়েমেনকে ফাঁকা রেখে আসা হয়নি। এছাড়া সেনা মোতায়েন প্রসঙ্গে রিয়াদের সঙ্গে বিস্তৃত আলোচনা করেছে তারা।’

ঘটনাপ্রবাহ : ইয়ামেনে সংঘাত

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×