ইসলাম বিষয়ে কটূক্তি, হিন্দু ছাত্রীকে কোরআন বিলির নির্দেশ আদালতের

  যুগান্তর ডেস্ক ১৭ জুলাই ২০১৯, ২১:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

রিচা প্যাটেল
রিচা প্যাটেল। ছবি: বিবিসি

মুসলমানদের ধর্মানুভূতিতে আঘাত দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ায় এক কলেজ ছাত্রীকে ব্যতিক্রমী শাস্তি দিয়েছে ভারতের একটি আদালত।

রিচা প্যাটেল নামের হিন্দু ধর্মাবলম্বী ওই কলেজ ছাত্রীকে পাঁচটি কোরআন কিনে ইসলামিক গ্রন্থাগারে বিতরনের নির্দেশ দেয় ঝাড়খণ্ডের রাজ্য আদালত।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, ফেসবুক আর হোয়াটসঅ্যাপে রিচা প্যাটেলের একটি পোস্টে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের ‘অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে’ মর্মে সামাজিক সংগঠন আঞ্জুমানে ইসলামিয়ার প্রধান মনসুর খলিফা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

এমন পোস্টের ফলে সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। অভিযোগ পেয়ে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রিচা প্যাটেলকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ।

রিচাকে আটকের খবর ছড়িয়ে পড়তেই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচি সহ বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করে।

রাঁচি সিভিল আদালতে রিচা প্যাটেলের পক্ষ থেকে জামিন আবেদন করা হলে শর্ত হিসাবে বিচারক জানান যে রিচাকে পাঁচটি কোরআন শরিফ কিনে আঞ্জুমান কমিটি আর গ্রন্থাগারে বিলি করতে হবে, এরপর সেই প্রাপ্তি স্বীকারের রসিদ আদালতে জমা দিতে হবে।

জেল থেকে মুক্তি পেতে জামিনের শর্ত হিসেবে কোরআন বিতরণ করার নির্দেশ দেয় রাঁচি সিভিল আদালত।

তবে রিচা প্যাটেলের দাবি, যে ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করার জন্য পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছিল, সেটা তিনি ‘নরেন্দ্র মোদী ফ্যানস ক্লাব’ নামের একটা গ্রুপ থেকে কপি করেছিলেন। ওই পোস্টে ইসলাম বিরোধী কোনও কথা ছিল না বলেও দাবি তার ।

এদিকে মামলা দায়েরকারী আঞ্জুমানে ইসলামিয়ার প্রধান মনসুর খলিফা জানিয়েছেন, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী এখনও তিনি রিচার কাছ থেকে পাঁচ কপি কোরআন পাননি।

তাছাড়া বিষয়টি না বাড়াতে রিচার জামিন আবেদনের বিরোধীতা করেননি বলেও জানান তিনি।

তার কথায়, পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পরে রিচা প্যাটেলের পরিবার আর সমাজের মান্যগণ্যরা তাকে অনুরোধ করেন যে মেয়েটির বয়স মাত্র ১৯ বছর, তাই তার ভবিষ্যতের কথা ভেবে যেন বিষয়টি মিটিয়ে নেন। তাই রিচা প্যাটেলের জামিনের বিরোধিতা করেননি মনসুর খলিফা।

তবে আদালতের এমন ব্যতিক্রমী নির্দেশনায় বেশিরভাগ মানুষই অবাক হয়েছেন। স্থানীয় বিজেপি নেতা প্রতুল সহদেব বলেন, ‘এটি একটি আজব রায়। ভারতের ইতিহাসে এমন রায় আমি আগে কখনও শুনিনি।’

বিষয়টিকে মৌলিক অধিকার হরণ দাবি করে রিচা প্যাটেলও উচ্চতর আদালতে যাওয়ার কথা বলেছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×