জনসনের সঙ্গে প্রথম ফোনালাপেই ইরান নিয়ে আলোচনা ট্রাম্পের
jugantor
জনসনের সঙ্গে প্রথম ফোনালাপেই ইরান নিয়ে আলোচনা ট্রাম্পের

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ জুলাই ২০১৯, ১৭:৫৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

জনসনের সঙ্গে প্রথম আলাপেই ইরান নিয়ে আলোচনা ট্রাম্পের

শপথ নেয়ার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথমবারের মতো ফোনালাপ করেছেন।

প্রথম আলাপেই তারা ইরান সংকট নিয়ে কথা বলেন। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

বরিস জনসেনর সঙ্গে আলাপের পর তাকে একজন ভালো মানুষ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্প বলেন, আমি ভবিষ্যদ্বাণী দিচ্ছি, তিনি এখন অসাধারণ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করবেন।

ইরানি পত্রিকায় বরিস জনসনকে ‌‘ব্রিটিশ ট্রাম্প’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ট্রাম্পের মতো করেই কথা বলার চেষ্টা করছেন ব্রিটেনের সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, ব্রেক্সিট-পরবর্তী একটি বাস্তবিক বাণিজ্য চুক্তি সম্ভব।

আগামী আগস্টে ফ্রান্সের বিয়ারিটজে জি৭ বৈঠকে বরিস জনসনের সঙ্গে দেখা হবে বলেও জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ইরানের সঙ্গে উত্তেজনা নিয়ে আলোচনার পর এই সংকটে দুই নেতা এক সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

জনসনের সঙ্গে প্রথম ফোনালাপেই ইরান নিয়ে আলোচনা ট্রাম্পের

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ জুলাই ২০১৯, ০৫:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জনসনের সঙ্গে প্রথম আলাপেই ইরান নিয়ে আলোচনা ট্রাম্পের
ছবি: সংগৃহীত

শপথ নেয়ার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথমবারের মতো ফোনালাপ করেছেন। 

প্রথম আলাপেই তারা ইরান সংকট নিয়ে কথা বলেন। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

বরিস জনসেনর সঙ্গে আলাপের পর তাকে একজন ভালো মানুষ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্প বলেন, আমি ভবিষ্যদ্বাণী দিচ্ছি, তিনি এখন অসাধারণ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করবেন।

ইরানি পত্রিকায় বরিস জনসনকে ‌‘ব্রিটিশ ট্রাম্প’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ট্রাম্পের মতো করেই কথা বলার চেষ্টা করছেন ব্রিটেনের সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, ব্রেক্সিট-পরবর্তী একটি বাস্তবিক বাণিজ্য চুক্তি সম্ভব।

আগামী আগস্টে ফ্রান্সের বিয়ারিটজে জি৭ বৈঠকে বরিস জনসনের সঙ্গে দেখা হবে বলেও জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট। 

ইরানের সঙ্গে উত্তেজনা নিয়ে আলোচনার পর এই সংকটে দুই নেতা এক সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ব্রেক্সিট ইস্যু

০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০