রেলস্টেশনে পাগলির গানে মুগ্ধ যাত্রীরা, ভিডিও ভাইরাল

  যুগান্তর ডেস্ক ০৩ আগস্ট ২০১৯, ১১:৪১ | অনলাইন সংস্করণ

পাগলির সেই গান
পাগলির সেই গান, ছবি: ফেসবুক

তার মুখের দিকে না তাকিয়ে গান শুনলে যে কেউ ভাববেন কোনো প্রতিষ্ঠিত শিল্পীর গান শুনছেন তিনি।

কল্পনাতেও আসবে না যে, কণ্ঠটি একটি রেলস্টেশনের প্ল্যাটফর্মে দিন যাপন করা কোনো এক পাগলির।

সেই সুরেলাকণ্ঠী পাগলির গান ফেসবুকে রীতিমতো ভাইরাল। গত রোববার ফেসবুকে সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকে তার গান শুনে মুগ্ধ হয়ে পড়েছেন লাখ লাখ নেটিজেন। তিনি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সুরসম্রাজ্ঞী।

ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা গেছে, রেলস্টেশনে সেই পাগলির পরনের শাড়িটি ছেঁড়া। ব্লাউজের রং নষ্ট হয়ে গেছে। দেখেই বোঝা যায়, অনেকদিন ধরে একই কাপড় পরিধান করে আছেন তিনি। একেবারেই অপরিচ্ছন্ন, চুলেও জট ধরেছে। অনেকদিন যে গোসল করেননি এই নারী সেটাও দৃশ্যমান। ক্লান্ত চেহারা দেখলেই বোঝা যায় খাবারের সন্ধানে কতটা সংগ্রাম করতে হয় এই নারীকে।

তবে এসবে কোনোই পরোয়া নেই সেই পাগলির। গানই যেন তার সুখের খোরাক। আপন মনে মায়া ভরা কন্ঠে গেয়ে চলছেন লতা মঙ্গেশকরের সেই বিখ্যাত হিন্দি গান, ‘এক প্যার কা নাগমা হ্যায়।’ সুর ও লয়ে এতটুকুও বিচ্যুতি নেই। কোথাও একচুল কোনো ভুলভ্রান্তি নেই। অনেকটা পেশাদার শিল্পীর মতোই গাইছেন তিনি।

পাগলির মুখে এমন মনমাতানো গান শুনে ভিড় জমিয়েছেন যাত্রীরা। তাদের অনেকেই মোবাইলের ক্যামেরায় ভিডিও করছেন। আর সেটি ছড়িয়ে দিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে।

জানা গেছে, ঘটনাটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদিয়া জেলার একটি রেলস্টেশনে। স্টেশনটির নাম রানাঘাট। এটি শিয়ালদহ - লালগোলা সেকশনের একটি গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে জংশন স্টেশন। সে স্টেশনের প্ল্যাটফর্মেই বসবাস এই সুরেলাকণ্ঠী পাগলির।

পাগলির সেই গানটি শুনুন:

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×