জেনে-বুঝেই কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরানের আপস: রেহাম খান

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ আগস্ট ২০১৯, ১১:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

কাশ্মীর নিয়ে দায়িত্বের সঙ্গে আপস করেছেন ইমরান: রেহাম খান
ছবি: সংগৃহীত

কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার গুরু দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেননি বলে অভিযোগ করেছেন তার সাবেক স্ত্রী রেহাম খান। এই লেখিকার অভিযোগ, সাবেক এই কিংবদন্তি ক্রিকেট তারকা কাশ্মীর সংকটে দায়িত্বের সঙ্গে আপস করেছেন।

রেহাম খান বলেন, তার সাবেক স্বামী সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন এবং ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তুষ্ট করার চেষ্টা করছেন। রুশ গণমাধ্যম স্পুটনিকের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

আইএএনএসকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, আমি বলবো-কাশ্মীর নিয়ে একটা সমঝোতা হয়েছে। আমরা শুরু থেকেই জেনে এসেছি যে কাশ্মীর পাকিস্তানেরই অংশ। কিন্তু কাশ্মীর বিক্রি হয়ে গেছে।

ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী বলেন, নরেন্দ্র মোদি তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেছেন। গত লোকসভা নির্বাচনে তিনি ইশতেহারে বলেছিলেন, কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করবেন। সেটাই করেছেন।

‘কিন্তু পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তখন কাশ্মীর নিয়ে একটি নীতিগত বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন-আমি জানতাম, মোদি এটা করতে যাচ্ছেন।’

ইমরান খান বলেছেন যে তিনি জানতেন, যখন তিনি বিশকেকে মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন, বললেন রেহাম খান।

‘যখন আপনি জানতেন যে এমনটা ঘটতে যাচ্ছে, তখন আপনি কেন মোদিকে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। কেন আপনি তাকে মিসড কল দিতে গেছেন?’

এই নারী সাংবাদিক বলেন, যখন আপনি সব জানতেন, অথচ আপনি কিছুই করেননি। তার অর্থ হচ্ছে-কোনো কিছু করতে আপনি অক্ষম কিংবা আপনি দুর্বল।

পেশায় সাংবাদিক রেহাম খান ইমরানের দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন। ১০ মাসের মতো তাদের সংসার টিকেছিল। এরপর থেকে তিনি সাবেক স্বামীর কড়া সমালোচনা করে আসছেন।

ভারতীয় নির্বাচনের আগে ইমরান খান বলেছিলেন, মোদি পুনর্নির্বাচিত হলে কাশ্মীর সংকটের সমাধান হবে।

রেহাম খান বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতার প্রস্তাব ছিল একটি ফাঁদ, যাতে ইমরান খান পা দিয়েছেন। কাজেই কাশ্মীর নিয়ে যা ঘটছিল, তা নিয়ে ইমরান খান অসচেতান ছিলেন কিংবা তিনি এই সমঝোতার অংশ ছিলেন।

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×