ইরানকে ঠেকাতে হরমুজ প্রণালীতে চীনকে চায় যুক্তরাষ্ট্র, কী করবে বেইজিং?

  অনলাইন ডেস্ক ২০ অগাস্ট ২০১৯, ১৮:৪৫:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

হরমুজ প্রণালীতে কয়েকটি তেলবাহী জাহাজে হামলার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের চলমান উত্তেজনার মধ্যে পারস্য উপসাগরের নিরাপত্তা ইস্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক জোট গঠনের চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন। খবর স্পুটনিক। হরমুজ প্রণালীতে মার্কিন নৌবাহিনী আন্তর্জাতিক জোট গঠন করে তেলের জাহাজকে নিরাপত্তা দেয়া ও ইরানকে কোণঠাসা করা।

চীনা পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পারস্য উপসাগরে জাহাজ চলাচল নিরাপদ রাখতে মার্কিন নেতৃত্বাধীন নৌবাহিনীতে চীনের যোগদানের বিষয় অভিলাষী চিন্তা-ভাবনা ছাড়া আর কিছু নয়।

গ্লোবাল টাইমস পত্রিকার প্রতিবেদন অনুযায়ী, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চাচ্ছে পারস্য উপসাগরে তেহরান-ওয়াশিংটন উত্তেজনার মধ্যে চীন তাদের সঙ্গে যুক্ত হউক। এ জাতীয় ঘটনা অসম্ভব। এতে ইরান ও চীনের উভয়ের স্বার্থকে বিপদে ফেলবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এটি অবশ্যই অভিলাষী চিন্ত-ভাবনা। ইরান চীনের কৌশলগত অংশীদার। চীন পারস্য উপসাগরে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় নিবেদিত। এ জাতীয় জোট কেবল ইরান ও চীনের উভয়ের স্বার্থই ক্ষতিগ্রস্ত করবে।

এর আগে জলদস্যুতা মোকাবেলায় ইরানের সঙ্গে বেইজিংয়ের সফল সহযোগিতা করেছে। এ ছাড়া আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও সুরক্ষা যৌথ প্রচেষ্টা বজায় রেখেছে।

স্পুটনিক বলছে, ওয়াশিংটন পারস্য উপসাগরে তেলের জাহাজগুলোর নিরাপত্তায় আন্তর্জাতিক জোট গঠনের চেষ্টা করছে। সম্প্রতি কয়েক মাসের মধ্যে হরমুজ প্রণালীতে তেলের জাহাজে কয়েকটি হামলার ঘটনায় ওই অঞ্চলটি নিয়ে চিন্তায় রয়েছে মার্কিন জোট। এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি রাষ্ট্রকে অনুরোধ করে তাদের নৌবাহিনীতে যোগদান করাতে পেরেছে।

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত