হিজবুল্লাহকে ধোঁকা: সীমান্তে সেনাদের ম্যানিকিন বসাল ইসরাইল
jugantor
হিজবুল্লাহকে ধোঁকা: সীমান্তে সেনাদের ম্যানিকিন বসাল ইসরাইল

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ আগস্ট ২০১৯, ১০:৩২:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হিজবুল্লাহকে ধোঁকা: সীমান্তে সেনাদের ম্যানিকিন বসাল ইসরাইল

লেবানন সীমান্তে জিপে সেনাবাহিনীর ম্যানিকিন বসিয়েছে অবৈধ ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইল। হিজবুল্লাহর সম্ভাব্য হামলার আশঙ্কা থেকেই এমনটি করা হচ্ছে।

হিজবুল্লাহর আল মানার টেলিভিশনে কাজ করেন আলী শোয়েব। টুইটারে তার পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দুটি সামরিক যানে এসব ম্যানিকিন রাখা হয়েছে। একেবারে সামনে সেনাবাহিনীর উর্দির হলুদাভ ডামি বসানো রয়েছে।

আলাদাভাবে চ্যানেল ১০ নিউজের ইসরাইলি সামরিক প্রতিনিধি ওর হেলার আরেকটি ম্যানিকিন রাখা যানের ছবি টুইটারে পোস্ট করেছেন।

ইসরাইলি সামরিক বাহিনী (আইডিএফ) বলছে, এ প্রতিবেদনের বিষয়ে তারা কোনো মন্তব্য করবে না।

তবে হিজবুল্লাহকে গুলি করতে প্রলুব্ধ করতে কিংবা অন্য কোনো উদ্দেশ্যে সেখানে পুতুল রাখা হয়েছে কিনা; তাও পরিষ্কার নয়।

টাইম অব ইসরাইলের খবর বলছে, শত্রুদের চোখে ধুলা দিতে এর আগেও বাংকারে ম্যানিকিন বসিয়ে রেখেছিল আইডিএফ। এমনভাবে এসব ম্যানিকিন রাখা হয়েছে, যাতে বোঝা যায়- ওই অবস্থানে সেনাবাহিনীতে পূর্ণ রয়েছে।

লেবাননভিত্তিক শক্তিশালী সামরিক ও রাজনৈতিক সংগঠন হচ্ছে হিজবুল্লাহ। ১৯৮০-এর দশকে ইসরাইলের প্রথম আগ্রাসনের পর তাদের আবির্ভাব ঘটেছে।

হিজবুল্লাহর উপনেতা দীর্ঘদিনের শত্রুদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক হামলা চালাতে পারে বলে ঘোষণা দেয়ার পর সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে অবৈধ রাষ্ট্রটি।

রোববার দুটি ড্রোন দিয়ে ইসরাইল হামলা চালাতে চেষ্টা করেছে বলে তিনি অভিযোগ তোলেন। ইসরাইল বৈরুত হামলার দাবি করেনি।

তবে দুই পশ্চিমা কূটনীতিক বলেন, অনুন্নত রকেটে অধিকতর উন্নত গাইডেন্স সিস্টেমের যন্ত্র ধ্বংস করে দিতে কিংবা গুপ্তহত্যাচেষ্টা বিরল অভিযান চালাতে পারে ইসরাইল।

হিজবুল্লাহকে ধোঁকা: সীমান্তে সেনাদের ম্যানিকিন বসাল ইসরাইল

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ আগস্ট ২০১৯, ১০:৩২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হিজবুল্লাহকে ধোঁকা: সীমান্তে সেনাদের ম্যানিকিন বসাল ইসরাইল
ছবি: টুইটার

লেবানন সীমান্তে জিপে সেনাবাহিনীর ম্যানিকিন বসিয়েছে অবৈধ ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইল। হিজবুল্লাহর সম্ভাব্য হামলার আশঙ্কা থেকেই এমনটি করা হচ্ছে।

হিজবুল্লাহর আল মানার টেলিভিশনে কাজ করেন আলী শোয়েব। টুইটারে তার পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দুটি সামরিক যানে এসব ম্যানিকিন রাখা হয়েছে। একেবারে সামনে সেনাবাহিনীর উর্দির হলুদাভ ডামি বসানো রয়েছে।

আলাদাভাবে চ্যানেল ১০ নিউজের ইসরাইলি সামরিক প্রতিনিধি ওর হেলার আরেকটি ম্যানিকিন রাখা যানের ছবি টুইটারে পোস্ট করেছেন।

ইসরাইলি সামরিক বাহিনী (আইডিএফ) বলছে, এ প্রতিবেদনের বিষয়ে তারা কোনো মন্তব্য করবে না।

তবে হিজবুল্লাহকে গুলি করতে প্রলুব্ধ করতে কিংবা অন্য কোনো উদ্দেশ্যে সেখানে পুতুল রাখা হয়েছে কিনা; তাও পরিষ্কার নয়।

টাইম অব ইসরাইলের খবর বলছে, শত্রুদের চোখে ধুলা দিতে এর আগেও বাংকারে ম্যানিকিন বসিয়ে রেখেছিল আইডিএফ। এমনভাবে এসব ম্যানিকিন রাখা হয়েছে, যাতে বোঝা যায়- ওই অবস্থানে সেনাবাহিনীতে পূর্ণ রয়েছে।

লেবাননভিত্তিক শক্তিশালী সামরিক ও রাজনৈতিক সংগঠন হচ্ছে হিজবুল্লাহ। ১৯৮০-এর দশকে ইসরাইলের প্রথম আগ্রাসনের পর তাদের আবির্ভাব ঘটেছে।

হিজবুল্লাহর উপনেতা দীর্ঘদিনের শত্রুদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক হামলা চালাতে পারে বলে ঘোষণা দেয়ার পর সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে অবৈধ রাষ্ট্রটি।

রোববার দুটি ড্রোন দিয়ে ইসরাইল হামলা চালাতে চেষ্টা করেছে বলে তিনি অভিযোগ তোলেন। ইসরাইল বৈরুত হামলার দাবি করেনি। 

তবে দুই পশ্চিমা কূটনীতিক বলেন, অনুন্নত রকেটে অধিকতর উন্নত গাইডেন্স সিস্টেমের যন্ত্র ধ্বংস করে দিতে কিংবা গুপ্তহত্যাচেষ্টা বিরল অভিযান চালাতে পারে ইসরাইল।