৫ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে ৫৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার
jugantor
যুক্তরাষ্ট্র-তালেবান চুক্তি
৫ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে ৫৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:০০:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনায় তালেবান নেতারা একটা খসড়া চুক্তির বিষয়ে একমত হয়েছেন।

ওই চুক্তি সম্পাদিত হলে পাঁচ মাসের মধ্যে আফগানিস্তানে পাঁচটি সামরিকঘাঁটি থেকে পাঁচ হাজার ৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা হবে।

আফগান টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান মধ্যস্থতাকারী জালমে খালিলজাদ সোমবার ওই মন্তব্য করেন।

তবে সব কিছু নির্ভর করছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মর্জির ওপর। বর্তমানে ১৪ হাজার মার্কিন সেনা আফগানিস্তানে মোতায়েন আছে।

যুক্তরাষ্ট্র-তালেবান শান্তিচুক্তির খসড়া প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার জন্য জালমে খালিলজাদ সোমবার কাবুলে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

আফগান প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র সেদিক সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন, খালিলজাদ ওই প্রস্তাবের গুরুত্বপূর্ণ খুঁটিনাটি তথ্য জানিয়েছেন এবং সরকারি কর্মকর্তারা তা নিয়ে আলোচনা করবেন। খালিলজাদের টিমের সঙ্গে আরও আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসলেও আফগান সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের সংলাপে বসতে রাজি না। কারণ তারা আফগান সরকারকে মার্কিনিদের পুতুল সরকার বলে মনে করে।

যুক্তরাষ্ট্র-তালেবান চুক্তি

৫ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে ৫৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনায় তালেবান নেতারা একটা খসড়া চুক্তির বিষয়ে একমত হয়েছেন।

ওই চুক্তি সম্পাদিত হলে পাঁচ মাসের মধ্যে আফগানিস্তানে পাঁচটি সামরিকঘাঁটি থেকে পাঁচ হাজার ৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা হবে।

আফগান টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান মধ্যস্থতাকারী জালমে খালিলজাদ সোমবার ওই মন্তব্য করেন।

তবে সব কিছু নির্ভর করছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মর্জির ওপর।  বর্তমানে ১৪ হাজার মার্কিন সেনা আফগানিস্তানে মোতায়েন আছে।

যুক্তরাষ্ট্র-তালেবান শান্তিচুক্তির খসড়া প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার জন্য জালমে খালিলজাদ সোমবার কাবুলে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

আফগান প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র সেদিক সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন, খালিলজাদ ওই প্রস্তাবের গুরুত্বপূর্ণ খুঁটিনাটি তথ্য জানিয়েছেন এবং সরকারি কর্মকর্তারা তা নিয়ে আলোচনা করবেন। খালিলজাদের টিমের সঙ্গে আরও আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসলেও আফগান সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের সংলাপে বসতে রাজি না। কারণ তারা আফগান সরকারকে মার্কিনিদের পুতুল সরকার বলে মনে করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন