আসামের পর এবার হরিয়ানাতেও এনআরসির ঘোষণা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

আসামে নাগরিকত্ব যাচাইয়ে বাদ পড়েছে ১৯ লাখ বাঙ্গালী। ছবি: সংগৃহীত
আসামে নাগরিকত্ব যাচাইয়ে বাদ পড়েছে ১৯ লাখ বাঙ্গালী। ছবি: সংগৃহীত

আসামের পর এবার ভারতের হরিয়ানা রাজ্যেও নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রণয়নের ঘোষণা দিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর। তবে পরিকল্পনার ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী বিস্তারিত কিছু বলেননি। এমনকি কবে নাগাদ এনআরসি হবে, সে বিষয়েও তিনি মুখ খুলেননি।

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বার দায়িত্ব পালন করছেন মনোহরলাল খট্টর। রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা ভোট উপলক্ষে বিজেপি আয়োজিত জনসম্পর্ক কর্মসূচিতে রোববার তিনি বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এদের মধ্যে রয়েছেন রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি এইচএস ভল্লা এবং সাবেক নৌ সেনাপ্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লাম্বা। রাজধানী চণ্ডিগড়ের পাচকুলায় ভল্লারের বাসভবনে এ বৈঠক করেন খট্টর।

পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময়ে খট্টর বলেন, ‘রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সভাপতিত্ব ছাড়াও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন ভল্লা। এখন তিনি এনআরসি নিয়ে কাজ করছেন। আমিও ওকে বলেছি যে আমরা এখানে এনআরসি লাগু করব এবং কীভাবে লাগু করা যায়, সে ব্যাপারে ওর সাহায্যও চেয়েছি। তিনি প্রস্তাব দিয়েছেন হরিয়ানার একটি আইন কমিশন থাকা উচিত। আমরা এ বিষয়টি নিয়ে পর্যালোচনা করে দেখব এবং রাজ্যের মানুষ যদি তার দ্বারা উপকৃত হন, তাহলে আমরা রাজ্যে আইন কমিশন স্থাপনও করব।’

আগামী অক্টোবরে হরিয়ানায় বিধানসভা ভোট। তার আগে রাজ্যজুড়ে ‘মহা সম্পর্ক অভিযানে’ নেমেছে বিজেপি। সাধারণ মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের সঙ্গে কথা বলছেন বিজেপি নেতারা। বাদ যাচ্ছেন না সেলিব্রেটি থেকে নাগরিক সমাজের বিশিষ্টজনেরা। এরই অংশ হিসেবে এদিন ভল্লারের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী খট্টর।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×