‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর একদিন নিয়ন্ত্রণ করবে ভারত’
jugantor
‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর একদিন নিয়ন্ত্রণ করবে ভারত’

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৪৫:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ এবং আমরা একদিন আক্ষরিক অর্থেই এর নিয়ন্ত্রণ আশা করি বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এস জয়শঙ্কর বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর সম্পর্কে মানুষ কী বলছে, তা সম্পর্কে ‘উদ্বিগ্ন’ হওয়ার কোনো কারণ নেই। নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ভারতের অবস্থান রয়েছে এবং থাকবে।

তিনি বলেন, পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ, আমরা আশা করি একদিন নিয়ন্ত্রণাধীন হবে- কার্যকরী নিয়ন্ত্রণ। জম্মু ও
ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল এবং রাজ্যটিকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করার বিষয়টিকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পাকিস্তান।

এদিকে কয়েক সপ্তাহ আগেই, এস জয়শঙ্করের মতো একই সুরে বিবৃতি দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এ পদক্ষপের ফলে দেশের অন্যান্য জায়গার মতোই সুযোগ-সুবিধা পাবে জম্মু ও কাশ্মীর।

অন্যদিকে ভারতের এ পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে পাকিস্তান। এমন ঘটনাকে তারা জাতিসংঘে নিয়ে যেতে চায় ইসলামাবাদ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী মাসে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সাধারণ পরিষদে তার সঙ্গে দেখা হবে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখন সম্পর্কের আবহাওয়াটি দেখুন, সেটাই আপনাকে উত্তর দেবে।

৩৭০ ধারা নিয়ে বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলোর জম্মু ও কাশ্মীরের নিরাপত্তা নিয়ে খবরের বিষয়ে উত্তর দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তিনি বলেন, মানুষের নিজের মতবাদ প্রকাশের অধিকার রয়েছে। আমি খুব কম এরকম খবর দেখেছি, যেখানে বলা হয়েছে, ৩৭০ ধারা ছিল একটি অস্থায়ী আইন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে মানুষ কী বলছে, তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হবেন না। ১৯৭২ থেকেই ভারতের অবস্থান পরিষ্কার। আমার ক্ষেত্রে, আমার অবস্থান থাকবে। মার্কিন কংগ্রেসের সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন কাজ করেছি। তারা অনেক কিছু বলে, কারণ, মানুষ বিশেষ সদস্যদের কাছে যায় এবং যা বলার প্রয়োজন, সেটাই বলে।

‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর একদিন নিয়ন্ত্রণ করবে ভারত’

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ছবি: সংগৃহীত

পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ এবং আমরা একদিন আক্ষরিক অর্থেই এর নিয়ন্ত্রণ আশা করি বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।  

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এস জয়শঙ্কর বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর সম্পর্কে মানুষ কী বলছে, তা সম্পর্কে ‘উদ্বিগ্ন’ হওয়ার কোনো কারণ নেই।  নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ভারতের অবস্থান রয়েছে এবং থাকবে। 

তিনি বলেন, পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ, আমরা আশা করি একদিন নিয়ন্ত্রণাধীন হবে- কার্যকরী নিয়ন্ত্রণ। জম্মু ও 
ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল এবং রাজ্যটিকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করার বিষয়টিকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পাকিস্তান।  

এদিকে কয়েক সপ্তাহ আগেই, এস জয়শঙ্করের মতো একই সুরে বিবৃতি দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু।  সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এ পদক্ষপের ফলে দেশের অন্যান্য জায়গার মতোই সুযোগ-সুবিধা পাবে জম্মু ও কাশ্মীর।

অন্যদিকে ভারতের এ পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে পাকিস্তান। এমন ঘটনাকে তারা জাতিসংঘে নিয়ে যেতে চায় ইসলামাবাদ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী মাসে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সাধারণ পরিষদে তার সঙ্গে দেখা হবে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখন সম্পর্কের আবহাওয়াটি দেখুন, সেটাই আপনাকে উত্তর দেবে।

৩৭০ ধারা নিয়ে বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলোর জম্মু ও কাশ্মীরের নিরাপত্তা নিয়ে খবরের বিষয়ে উত্তর দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তিনি বলেন, মানুষের নিজের মতবাদ প্রকাশের অধিকার রয়েছে। আমি খুব কম এরকম খবর দেখেছি, যেখানে বলা হয়েছে, ৩৭০ ধারা ছিল একটি অস্থায়ী আইন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে মানুষ কী বলছে, তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হবেন না। ১৯৭২ থেকেই ভারতের অবস্থান পরিষ্কার। আমার ক্ষেত্রে, আমার অবস্থান থাকবে। মার্কিন কংগ্রেসের সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন কাজ করেছি। তারা অনেক কিছু বলে, কারণ, মানুষ বিশেষ সদস্যদের কাছে যায় এবং যা বলার প্রয়োজন, সেটাই বলে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট