হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনায় সৌদি
jugantor
হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনায় সৌদি

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:২৩:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনায় সৌদি
ছবি: সংগৃহীত

ইয়েমেনে ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সৌদি আরব। দেশটিতে চলমান গৃহযুদ্ধের অবসানের উদ্দেশ্যেই এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। 

রিয়াদের এক কর্মকর্তার বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এমন তথ্য জানিয়েছে।

এর মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী দুই বৈরী পক্ষের মধ্যে আলোচনার কথা প্রথমবারের মতো নিশ্চিত করা হয়েছে।

যুদ্ধকবলিত দেশটিতে আন্তর্জাতিক স্বীকৃত সরকার ও দক্ষিণাঞ্চলীয় বিদ্রোহীদের মধ্যে ক্ষমতার ভাগাভাগির একটি চুক্তি সই হওয়ার পর এই মন্তব্য পাওয়া গেছে।

বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে ওই চুক্তির ফলে বড় ধরনের শান্তির পথ তৈরি হবে ধারনা করা হচ্ছে। 

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক জ্যেষ্ঠ সৌদি কর্মকর্তা বলেন, ২০১৬ সাল থেকেই হুতিদের সঙ্গে আলোচনার একটি পথ খোলা ছিল। ইয়েমেনে শান্তি প্রতিষ্ঠাকে সমর্থন দিতে আমরা যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি।

হুতিদের সঙ্গে আলোচনার দরজা বন্ধ করা হয়নি বলেও জানিয়েছেন ওই সৌদি কর্মকর্তা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা এর বাইরে কোনো তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন। 

গ্রীষ্মে সৌদি শহরগুলোতে বিদ্রোহীদের ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বেড়ে যাওয়ার পর আলোচনায় উন্নতির নতুন এই খবরে এসেছে।

এ নিয়ে হুতি বিদ্রোহীদের কাছ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। ২০১৪ সালে তারা রাজধানী সানা ও দেশটির উত্তরের অধিকাংশের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

পরবর্তীতে হুতিদের দমনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট অব্যাহত বিমান হামলা শুরু করে।

গত সেপ্টেম্বরে সৌদি আরব সফরে থাকাকালে নিকট প্রাচ্যবিষয়ক মার্কিন অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডেভিড সেনকার বলেন, হুতিদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রও আলোচনায় রয়েছে।

কিন্তু বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র আলাদা কোনো আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে কিনা তা তিনি বলেননি। কিন্তু বিশ্লেষকরা জানান, সৌদি আরবের সঙ্গে পরামর্শ করেই তারা এ আলোচনা করছেন।

হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনায় সৌদি

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনায় সৌদি
ছবি: সংগৃহীত

ইয়েমেনে ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সৌদি আরব। দেশটিতে চলমান গৃহযুদ্ধের অবসানের উদ্দেশ্যেই এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

রিয়াদের এক কর্মকর্তার বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এমন তথ্য জানিয়েছে।

এর মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী দুই বৈরী পক্ষের মধ্যে আলোচনার কথা প্রথমবারের মতো নিশ্চিত করা হয়েছে।

যুদ্ধকবলিত দেশটিতে আন্তর্জাতিক স্বীকৃত সরকার ও দক্ষিণাঞ্চলীয় বিদ্রোহীদের মধ্যে ক্ষমতার ভাগাভাগির একটি চুক্তি সই হওয়ার পর এই মন্তব্য পাওয়া গেছে।

বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে ওই চুক্তির ফলে বড় ধরনের শান্তির পথ তৈরি হবে ধারনা করা হচ্ছে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক জ্যেষ্ঠ সৌদি কর্মকর্তা বলেন, ২০১৬ সাল থেকেই হুতিদের সঙ্গে আলোচনার একটি পথ খোলা ছিল। ইয়েমেনে শান্তি প্রতিষ্ঠাকে সমর্থন দিতে আমরা যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি।

হুতিদের সঙ্গে আলোচনার দরজা বন্ধ করা হয়নি বলেও জানিয়েছেন ওই সৌদি কর্মকর্তা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা এর বাইরে কোনো তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন।

গ্রীষ্মে সৌদি শহরগুলোতে বিদ্রোহীদের ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বেড়ে যাওয়ার পর আলোচনায় উন্নতির নতুন এই খবরে এসেছে।

এ নিয়ে হুতি বিদ্রোহীদের কাছ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। ২০১৪ সালে তারা রাজধানী সানা ও দেশটির উত্তরের অধিকাংশের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

পরবর্তীতে হুতিদের দমনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট অব্যাহত বিমান হামলা শুরু করে।

গত সেপ্টেম্বরে সৌদি আরব সফরে থাকাকালে নিকট প্রাচ্যবিষয়ক মার্কিন অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডেভিড সেনকার বলেন, হুতিদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রও আলোচনায় রয়েছে।

কিন্তু বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র আলাদা কোনো আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে কিনা তা তিনি বলেননি। কিন্তু বিশ্লেষকরা জানান, সৌদি আরবের সঙ্গে পরামর্শ করেই তারা এ আলোচনা করছেন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইয়ামেনে সংঘাত