পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে!
jugantor
পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে!

  অনলাইন ডেস্ক  

০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:৩২:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কনেকে পেঁয়াজ উপহার দিচ্ছেন তার বন্ধুরা। ছবি-সংগৃহীত

বিয়ের অনুষ্ঠানে বর-কনেকে বাজারে আগুন ধরানো ৩০ কেজি পেঁয়াজ উপহার দিলেন বন্ধুরা।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বর্ধমান শহরে।

কনের বন্ধুদের বরাত দিয়ে আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। রসনায় টান পড়ছে। নবদম্পতির ক্ষেত্রে অন্তত তা যেন না হয় তাই এই উপহার বেছে নিয়েছেন তারা। অভিনব উপহারে খুশি ওই দম্পতিও।

জানা গেছে, গত রোববার দিঘিরপুল এলাকার একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে রাজগঞ্জের সঙ্গীতা কুণ্ডু ও আলমগঞ্জের শুভম রায়ের বিয়ে হয়।

সেখানেই সকালে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে কনের বন্ধুরা হাজির হন এক ঝুড়ি পেঁয়াজ নিয়ে। অতিথি, আত্মীয়দের অবাক দৃষ্টি দেখে তারা স্পষ্ট করে দেন, এক ঝুড়ি নয় আসলে তিরিশ কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন তারা। এটাই বিয়ের উপহার।

তাদের ভাষ্য, ‘পেঁয়াজ এখন মহার্ঘ্য। প্রতিদিন বাজারে হাহুতাশ শুনছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সোনার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে পেঁয়াজকে। তাই একটু অন্যরকম অথচ উপকারী উপহার হিসেবে পেঁয়াজের কথা মাথায় আসে আমাদের।’ বাজার থেকে ৮০ টাকা কেজিতে ওই পেঁয়াজ কিনেছেন বলেও জানান তারা।

কনে সঙ্গীতা বলেন, ‘খবরে এই ধরনের ঘটনা শুনেছি। নিজের ক্ষেত্রে এমন অভিজ্ঞতা হবে ভাবিনি। তবে শরীর ভাল রাখতে বা খাবারের স্বাদ বাড়াতে উপহার যে উপকারী তা নিয়ে সন্দেহ নেই।’

পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে!

 অনলাইন ডেস্ক 
০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কনেকে পেঁয়াজ উপহার দিচ্ছেন তার বন্ধুরা। ছবি-সংগৃহীত
কনেকে পেঁয়াজ উপহার দিচ্ছেন তার বন্ধুরা। ছবি-সংগৃহীত

বিয়ের অনুষ্ঠানে বর-কনেকে বাজারে আগুন ধরানো ৩০ কেজি পেঁয়াজ উপহার দিলেন বন্ধুরা। 

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বর্ধমান শহরে। 

কনের বন্ধুদের বরাত দিয়ে আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। রসনায় টান পড়ছে। নবদম্পতির ক্ষেত্রে অন্তত তা যেন না হয় তাই এই উপহার বেছে নিয়েছেন তারা। অভিনব উপহারে খুশি ওই দম্পতিও।

জানা গেছে, গত রোববার দিঘিরপুল এলাকার একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে রাজগঞ্জের সঙ্গীতা কুণ্ডু ও আলমগঞ্জের শুভম রায়ের বিয়ে হয়। 

সেখানেই সকালে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে কনের বন্ধুরা হাজির হন এক ঝুড়ি পেঁয়াজ নিয়ে। অতিথি, আত্মীয়দের অবাক দৃষ্টি দেখে তারা স্পষ্ট করে দেন, এক ঝুড়ি নয় আসলে তিরিশ কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন তারা। এটাই বিয়ের উপহার। 

তাদের ভাষ্য, ‘পেঁয়াজ এখন মহার্ঘ্য। প্রতিদিন বাজারে হাহুতাশ শুনছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সোনার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে পেঁয়াজকে। তাই একটু অন্যরকম অথচ উপকারী উপহার হিসেবে পেঁয়াজের কথা মাথায় আসে আমাদের।’ বাজার থেকে ৮০ টাকা কেজিতে ওই পেঁয়াজ কিনেছেন বলেও জানান তারা।

কনে সঙ্গীতা বলেন, ‘খবরে এই ধরনের ঘটনা শুনেছি। নিজের ক্ষেত্রে এমন অভিজ্ঞতা হবে ভাবিনি। তবে শরীর ভাল রাখতে বা খাবারের স্বাদ বাড়াতে উপহার যে উপকারী তা নিয়ে সন্দেহ নেই।’