সুদানে টাইলস কারখানায় গ্যাস ট্যাংকার বিস্ফোরণে নিহত ২৩

  যুগান্তর ডেস্ক ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:২০ | অনলাইন সংস্করণ

সুদানে টাইলস কারখানায় গ্যাস ট্যাংকার বিস্ফোরণে নিহত ২৩
ছবি: এএফপি

সুদানের রাজধানীতে একটি গ্যাস ট্যাংকার বিস্ফোরণে আগুন ছড়িয়ে পড়লে ২৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হন আরও কয়েক ডজন।

মঙ্গলবার এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে কর্মকর্তাদের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, উত্তর খার্তুমের একটি টাইলস উৎপাদন ইউনিটে আগুন ছড়িয়ে পড়লে আকাশে কুণ্ডলী পাকানো কালো ধোঁয়া উঠতে দেখা গেছে।

কাছের একটি কারখানার এক কর্মী বলেন, বিস্ফোরণ ছিল বিকট। কারখানার কম্পাউন্ডে কয়েকটি গাড়ি পার্ক করা ছিল। এসব গাড়িতেও আগুন লেগে যায় বলে খবরে দাবি করা হয়েছে।

আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে অগ্নিনির্বাপক বাহিনী কাজ করছে বলে এএফপি জানিয়েছে।

খার্তুমে ভারতীয় দূতাবাস জানায়, অর্ধশতাধিকের বেশি ভারতীয় ওই কারখানাটিতে কর্মরত রয়েছেন। হতাহতের মধ্যে তারাও আছেন।

তবে সংখ্যা উল্লেখ না করেই নিজেদের ওয়েবসাইটে ভারতীয় দূতাবাস এমন তথ্য দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে সুদানের মন্ত্রিসভা জানায়, শিল্প এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়লে ২৩ জন নিহত ও ১৩০ জন আহত হয়েছেন। গ্যাস ট্যাংকার বিস্ফোরণে এই আগুনের সূত্রপাত।

কারখানাটির কর্মী উইলিয়াম বলেন, কী হয়েছে আমি কিছুই বুঝতে পারিনি। বিস্ফোরণের শব্দ শুনে আমি দৌড় দিই। আলখাল্লা পরা এক লোক আমার পেছনে দৌড়াচ্ছিল, সে গুরুতর আহত ছিল আর আমার পায়েও আঘাত লেগেছিল।

ঘটনাস্থলে থাকা স্বেচ্ছাসেবক হুসেইন ওমর বলেন, আমি ১৪টি মরদেহ টেনে বের করেছি। সেগুলো পুরোপুরি দগ্ধ ছিল।

আহতদের চিকিৎসার জন্য নাগরিকদের রক্ত দেয়ার অনুরোধ করেছে সুদান সরকার।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে কারখানাটিতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তাব্যবস্থার অপ্রতুলতা ও অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রপাতির অভাব ছিল বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে, এর সঙ্গে যোগ হয়েছে যত্রতত্র দাহ্য বস্তু স্তূপ করে রাখা।

হতাহতদের মধ্যে কারখানাটির কর্মী বহু দেশের নাগরিক। তাদের মধ্যে এশিয়ার কয়েকটি দেশের নাগরিকও আছেন বলে মেডিকেল সূত্র জানিয়েছে।

আহতদের সবাইকে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা সংকটজনক বলে স্থানীয় এক পুলিশপ্রধান জানিয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

 
×