আত্মরক্ষার্থে পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিন: প্রিয়াংকা
jugantor
আত্মরক্ষার্থে পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিন: প্রিয়াংকা

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০৮:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে নারীদের ওপর নিপীড়ন যেকোনো সময়ের চেয়ে বেড়ে গেছে। একের পর এক ঘটছে ধর্ষণ আর ধর্ষণের পর হত্যা।

এসব অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াংকা গান্ধী। খবর এনডিটিভির।

নির্যাতন বন্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সমাজে নারীদের আরও ক্ষমতাশালী হতে বললেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশে এক সভায় শুক্রবার নারীদের বিরুদ্ধে সংগঠিত অপরাধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, এ ধরনের অপরাধ থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়ার সময় এসেছে।

আমি আমার বোনদের বলব– পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে আনুন, পঞ্চায়েত ও বিধানসভা নির্বাচন লড়ুন এবং রাজনীতিতে এগিয়ে আসুন।

আপনি ক্ষমতা হাতে নিন এবং এই ধরনের ঘটনা থেকে নিজেই নিজের আত্মরক্ষা করুন। তিনি আরও বলেন, তার দল কংগ্রেস সর্বস্তরের নারী অধিকারের জন্যই লড়াই করছে।

উত্তরপ্রদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বিশেষত নারীদের প্রতি সহিংসতা যেভাবে বাড়ছে, তা নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, উন্নাওতে দেখা গেছে যে, গত ১১ মাসে প্রায় ৯০টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

শেষ ঘটনাটির কথা জানার পরও সরকার শেষ পর্যন্ত অপরাধীদের রক্ষা করতে চেয়েছিল। আপনি ভাবতে পারেন যে, এই মহিলার পক্ষে যুদ্ধ করা কতটা কঠিন।

তিনি উন্নাও ধর্ষণ মামলার কথা উল্লেখ করে বলেন, যেখানে অভিযুক্ত ছিলেন একজন বিজেপি বিধায়ক, তাকে কীভাবে পুলিশ ধরবে?

কংগ্রেস নেত্রী বলেন, এটি একেবারে জরুরি অবস্থার মতো পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছে।  ক্ষতিগ্রস্তদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সহায়তা দেয়ার জন্য সরকারকে পরামর্শও দেন তিনি।

প্রিয়াংকা গান্ধী বলেন, আমার পরামর্শ হলো- মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি সেল স্থাপন করা হোক, যেখানে প্রতিটি জেলার এসপি সরাসরি নারীদের করা অভিযোগ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এফআইআর করবেন এবং মহিলাদের নিরাপত্তা বাড়াবেন।

তিনি বলেন, ভিকটিমকে নিরাপত্তা না দিয়ে আপনি অপরাধীদের নিরাপত্তা দিচ্ছেন। এটি কোনো রাজনৈতিক সমস্যা নয়। এসব ঘটনা নারীর নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগজনক এবং সর্বাত্মক গুরুত্বসহকারে বিষয়টি দেখা উচিত।

আত্মরক্ষার্থে পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিন: প্রিয়াংকা

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে নারীদের ওপর নিপীড়ন যেকোনো সময়ের চেয়ে বেড়ে গেছে। একের পর এক ঘটছে ধর্ষণ আর ধর্ষণের পর হত্যা।

এসব অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াংকা গান্ধী। খবর এনডিটিভির।

নির্যাতন বন্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সমাজে নারীদের আরও ক্ষমতাশালী হতে বললেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশে এক সভায় শুক্রবার নারীদের বিরুদ্ধে সংগঠিত অপরাধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, এ ধরনের অপরাধ থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়ার সময় এসেছে।

আমি আমার বোনদের বলব– পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে আনুন, পঞ্চায়েত ও বিধানসভা নির্বাচন লড়ুন এবং রাজনীতিতে এগিয়ে আসুন।

আপনি ক্ষমতা হাতে নিন এবং এই ধরনের ঘটনা থেকে নিজেই নিজের আত্মরক্ষা করুন। তিনি আরও বলেন, তার দল কংগ্রেস সর্বস্তরের নারী অধিকারের জন্যই লড়াই করছে।

উত্তরপ্রদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বিশেষত নারীদের প্রতি সহিংসতা যেভাবে বাড়ছে, তা নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, উন্নাওতে দেখা গেছে যে, গত ১১ মাসে প্রায় ৯০টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

শেষ ঘটনাটির কথা জানার পরও সরকার শেষ পর্যন্ত অপরাধীদের রক্ষা করতে চেয়েছিল। আপনি ভাবতে পারেন যে, এই মহিলার পক্ষে যুদ্ধ করা কতটা কঠিন।

তিনি উন্নাও ধর্ষণ মামলার কথা উল্লেখ করে বলেন, যেখানে অভিযুক্ত ছিলেন একজন বিজেপি বিধায়ক, তাকে কীভাবে পুলিশ ধরবে?

কংগ্রেস নেত্রী বলেন, এটি একেবারে জরুরি অবস্থার মতো পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সহায়তা দেয়ার জন্য সরকারকে পরামর্শও দেন তিনি।

প্রিয়াংকা গান্ধী বলেন, আমার পরামর্শ হলো- মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি সেল স্থাপন করা হোক, যেখানে প্রতিটি জেলার এসপি সরাসরি নারীদের করা অভিযোগ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এফআইআর করবেন এবং মহিলাদের নিরাপত্তা বাড়াবেন।

তিনি বলেন, ভিকটিমকে নিরাপত্তা না দিয়ে আপনি অপরাধীদের নিরাপত্তা দিচ্ছেন। এটি কোনো রাজনৈতিক সমস্যা নয়। এসব ঘটনা নারীর নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগজনক এবং সর্বাত্মক গুরুত্বসহকারে বিষয়টি দেখা উচিত।