ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে হজ পালন নিয়ে সমঝোতা চুক্তি
jugantor
ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে হজ পালন নিয়ে সমঝোতা চুক্তি

  যুগান্তর ডেস্ক  

১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:০৭:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরান ও সৌদি আরব আগামী বছরের হজের বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

রিয়াদে রোববার আলাপ-আলোচনা শেষে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ সালেহ বিন তাহের বেনতেন এবং ইরানের হজ ও জিয়ারত সংস্থার প্রধান আলি রেজা রাশিদিয়ান এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। খবর সৌদি গেজেটের।

সমঝোতা চুক্তির পর ইরানের আলি রেজা রাশিদিয়ান বলেন, এতে ইরানের হজযাত্রীদের মর্যাদা, নিরাপত্তা ও শান্তি সুরক্ষাকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ২০১৫ সালে মিনায় ইরানি হজযাত্রী নিহতের বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরবের মন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে।

তবে আগামী বছর কতজন ইরানি হজযাত্রী সৌদি আরবে যাওয়ার অনুমতি পাচ্ছেন, তা খোলাসা করেননি রাশিদিয়ান।

তবে গত সপ্তাহে তিনি বলেছিলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে বৈঠকে ইরানি হজযাত্রীর কোটা বাড়ানোর দাবি জানাবেন। গত বছর প্রায় সাড়ে ৮৮ হাজার ইরানি হজ পালন করেন।

২০১৫ সালে সৌদি বাদশাহ পরিবারের অতিথিদের গাড়িবহরের জন্য রাস্তা বন্ধ রাখার কারণে ভিড়ের মধ্যে বিশৃঙ্খলা ও পদপিষ্ট হয়ে ৪৬৪ ইরানিসহ ৩৬ দেশের প্রায় আড়াই হাজার মানুষ প্রাণ হারান।

অবশ্য সৌদি কর্তৃপক্ষ দাবি করে, নিহতের সংখ্যা সর্বসাকল্যে ৭৭০ জনের মতো। কিন্তু ইরানের দাবি, ওই দুর্ঘটনায় অন্তত চার হাজার ৭০০ মানুষ প্রাণ হারান।

ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে হজ পালন নিয়ে সমঝোতা চুক্তি

 যুগান্তর ডেস্ক 
১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরান ও সৌদি আরব আগামী বছরের হজের বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

রিয়াদে রোববার আলাপ-আলোচনা শেষে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ সালেহ বিন তাহের বেনতেন এবং ইরানের হজ ও জিয়ারত সংস্থার প্রধান আলি রেজা রাশিদিয়ান এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। খবর সৌদি গেজেটের।

সমঝোতা চুক্তির পর ইরানের আলি রেজা রাশিদিয়ান বলেন, এতে ইরানের হজযাত্রীদের মর্যাদা, নিরাপত্তা ও শান্তি সুরক্ষাকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ২০১৫ সালে মিনায় ইরানি হজযাত্রী নিহতের বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরবের মন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে।

তবে আগামী বছর কতজন ইরানি হজযাত্রী সৌদি আরবে যাওয়ার অনুমতি পাচ্ছেন, তা খোলাসা করেননি রাশিদিয়ান।

তবে গত সপ্তাহে তিনি বলেছিলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে বৈঠকে ইরানি হজযাত্রীর কোটা বাড়ানোর দাবি জানাবেন। গত বছর প্রায় সাড়ে ৮৮ হাজার ইরানি হজ পালন করেন।

২০১৫ সালে সৌদি বাদশাহ পরিবারের অতিথিদের গাড়িবহরের জন্য রাস্তা বন্ধ রাখার কারণে ভিড়ের মধ্যে বিশৃঙ্খলা ও পদপিষ্ট হয়ে ৪৬৪ ইরানিসহ ৩৬ দেশের প্রায় আড়াই হাজার মানুষ প্রাণ হারান।

অবশ্য সৌদি কর্তৃপক্ষ দাবি করে, নিহতের সংখ্যা সর্বসাকল্যে ৭৭০ জনের মতো। কিন্তু ইরানের দাবি, ওই দুর্ঘটনায় অন্তত চার হাজার ৭০০ মানুষ প্রাণ হারান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : সৌদি-ইরান সম্পর্কোন্নয়নে ইমরান খান