পরমাণু চুক্তি ওবামার সঙ্গে করিনি, করেছি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে: জারিফ
jugantor
পরমাণু চুক্তি ওবামার সঙ্গে করিনি, করেছি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে: জারিফ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:০১:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে প্রস্তাবিত নয়া সমঝোতা মেনে নেয়ার জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী যে আহ্বান জানিয়েছেন, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ তা সরাসরি নাকচ করে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ২০১৫ সালে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তিতে ইরান তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে চুক্তি করেনি, করেছে তার দেশ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে। তা হলে প্রেসিডেন্ট পরিবর্তনের পর আবার নতুন করে চুক্তি করতে হবে কেন? খবর আলজাজিরার।

জারিফ নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন– আমরা কোনো ‘ওবামীয় চুক্তি’ করিনি যে সেটিকে এখন ‘ট্রাম্পীয় চুক্তির’ সঙ্গে পরিবর্তন করতে হবে।

আজ যদি আমরা তা করি তা হলে কে আমাদের এই গ্যারান্টি দিতে পারবেন, আগামী বছর আমাদেরকে আবার ‘বাইডেনীয়’, বা ‘স্যান্ডার্সীয়’ কিংবা ‘ওয়ারেনীয়’ চুক্তি সই করতে হবে না?

চলতি বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সম্ভাব্য তিন প্রার্থীর নাম উল্লেখ করে জারিফ এ মন্তব্য করেন।

তিনি আরও বলেন, ইরান সংলাপ ও কূটনীতিতে বিশ্বাসী। কিন্তু ছয় বিশ্বশক্তি ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সমঝোতার মাধ্যমে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যে প্রস্তাব পাস হয়েছে, সে ব্যাপারে তেহরান আবার আলোচনায় বসতে প্রস্তুত নয়।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন পরমাণু সমঝোতার পরিবর্তে একটি ‘ট্রাম্প ডিল’ বা ‘ট্রাম্পীয় সমঝোতা’ মেনে নেয়ার আহ্বান জানানোর একদিন পর জারিফ এ প্রতিক্রিয়া জানালেন।

পরমাণু চুক্তি ওবামার সঙ্গে করিনি, করেছি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে: জারিফ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৬ জানুয়ারি ২০২০, ০৩:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে প্রস্তাবিত নয়া সমঝোতা মেনে নেয়ার জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী যে আহ্বান জানিয়েছেন, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ তা সরাসরি নাকচ করে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ২০১৫ সালে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তিতে ইরান তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে চুক্তি করেনি, করেছে তার দেশ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে। তা হলে প্রেসিডেন্ট পরিবর্তনের পর আবার নতুন করে চুক্তি করতে হবে কেন? খবর আলজাজিরার।

জারিফ নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন– আমরা কোনো ‘ওবামীয় চুক্তি’ করিনি যে সেটিকে এখন ‘ট্রাম্পীয় চুক্তির’ সঙ্গে পরিবর্তন করতে হবে।

আজ যদি আমরা তা করি তা হলে কে আমাদের এই গ্যারান্টি দিতে পারবেন, আগামী বছর আমাদেরকে আবার ‘বাইডেনীয়’, বা ‘স্যান্ডার্সীয়’ কিংবা ‘ওয়ারেনীয়’ চুক্তি সই করতে হবে না?

চলতি বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সম্ভাব্য তিন প্রার্থীর নাম উল্লেখ করে জারিফ এ মন্তব্য করেন।

তিনি আরও বলেন, ইরান সংলাপ ও কূটনীতিতে বিশ্বাসী। কিন্তু ছয় বিশ্বশক্তি ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সমঝোতার মাধ্যমে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যে প্রস্তাব পাস হয়েছে, সে ব্যাপারে তেহরান আবার আলোচনায় বসতে প্রস্তুত নয়।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন পরমাণু সমঝোতার পরিবর্তে একটি ‘ট্রাম্প ডিল’ বা ‘ট্রাম্পীয় সমঝোতা’ মেনে নেয়ার আহ্বান জানানোর একদিন পর জারিফ এ প্রতিক্রিয়া জানালেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানের পরমাণু সমঝোতা