আমার কাছ থেকেই আপনারা সত্যিটা শুনুন: হ্যারি

  যুগান্তর ডেস্ক ২১ জানুয়ারি ২০২০, ১২:১২:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

হ্যারি-মেগানকে ব্রিটেনের রাজপরিবার যেভাবে তাদের সব ‘রাজদায়িত্ব’ থেকে ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাতে ব্যথিত হ্যারি।

এক অনুষ্ঠানে রোববার তিনি জানিয়েছেন, পরিবার থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার কথা ভাবেননি তারা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে এইচআইভি আক্রান্ত শিশুদের সাহায্যার্থে কাজ করা একটি সংস্থার সহপ্রতিষ্ঠাতা হ্যারি। সেটিরই অনুষ্ঠানে গিয়ে হ্যারি বেশ আবেগতাড়িত হয়ে এসব বলেন।

রাজপরিবারের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর এই প্রথম ওই বিষয়ে মুখ খুলেছেন হ্যারি। সেবামূলক এক অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি বলেন, জনতার অর্থ ছেড়ে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের হয়ে কাজ করতে চেয়েছিলেন তারা। কিন্তু ‘দুর্ভাগ্যবশত সেটি সম্ভব হলো না।’

অনুষ্ঠানে হ্যারি অকপটে বলেন, আমি চাই আমার কাছ থেকেই সত্যিটা আপনারা জানুন। রাজকুমার বা ডিউক অব সাসেক্স হিসেবে নয়। হ্যারি হিসেবে আমি যা বলব, সেটিই শুনুন।’

হ্যারি বলেন, কীভাবে মেগানের সঙ্গে তার ভালোবাসার শুরু। একসঙ্গে তারা কীভাবে সাধারণের জন্য কাজে নিয়োজিত হতে পারেন বলে ভেবেছেন তাও জানান সবাইকে।

তিনি আরও বলেন, ব্রিটেন আমার ঘরবাড়ি। এই দেশকে ভালোবাসি। সেটি কোনো দিন পাল্টাবে না। আপনাদের অনেকে পাশে ছিলেন, সেই সমর্থন নিয়ে বড় হয়ে উঠেছি।

মেগানকে কীভাবে ভালোবেসে আপনারা আপন করে নিয়েছেন, দেখেছি। আপনারা দেখেছেন সারা জীবন যে ভালোবাসা আর সুখের খোঁজে ছিলাম, তা ওর মধ্যেই পেয়েছি।

আপনারা এই কয়েক বছরে আমাকে ভালো করে চিনেছেন। তাই বুঝেছেন, যাকে আমি স্ত্রী হিসেবে বেছে নিয়েছি, তার মূল্যবোধও আমার মতোই।

হ্যারি বলেন, আমরা এ দেশের জন্য যা যা করার প্রয়োজন, গর্বের সঙ্গে করব। বিয়ের পর সেটি ভেবেই খুশি ছিলাম। মনে হয়েছিল আমরা মানুষের জন্য কিছু করব। কিন্তু গোটা বিষয়টি এমন জায়গায় এসে ঠেকেছে, যে খারাপ লাগছে।

আপাতত বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে হ্যারিদের জন্য নির্দেশ– ‘হিস অ্যান্ড হার রয়্যাল হাইনেস’ উপাধি ছেড়ে দেবেন তারা।

রানি দ্বিতীয় এলিজ়াবেথের প্রতিনিধিত্বও করবেন না। হ্যারি সরে যাবেন সেনাবাহিনীর সাম্মানিক সব পদ থেকে। ফ্রগমোর কটেজের (লন্ডনে তাদের ঠিকানা) সংস্কারের যে অর্থ তারা ফেরত দিতে চেয়েছিলেন, তাও প্রয়োজন নেই বলে দেয়া হয়েছে।

এসব সিদ্ধান্তই এক বছর পর পুনর্বিবেচনা হবে। আর এ সিদ্ধান্তেই ব্যথিত হ্যারি। তবে তিনি স্পষ্ট করেছেন, তার দাদির (কমান্ডার ইন চিফ) জন্য তার শ্রদ্ধা একই থাকবে।

ভারাক্রান্ত কণ্ঠে তিনি আরও বলেন, রানি, কনওয়েলথ, সেনাবাহিনী–সব কিছুতেই জড়িয়ে থাকতে চেয়েছিলাম। শুধু জনতার অর্থ নিতে চাইনি। দুর্ভাগ্যবশত, সেটি কার্যকর করা যায়নি। তাই এটিই মেনে নিয়েছি।

মা প্রিন্সেস ডায়ানার প্রসঙ্গে হ্যারি বলেন, ২৩ বছর আগে মাকে হারানোর পর আপনারা পাশে ছিলেন। আশা করি সবসময় আপনাদের পাশে পাব।

ঘটনাপ্রবাহ : ব্রিটিশ রাজপরিবারে হ্যারি মেগান সংকট

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত