৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী (ভিডিও)
jugantor
৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:০৫:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী (ভিডিও)
ছবি: মেইল অনলাইন

রাশিয়ার একটি টাওয়ার ভবন থেকে ২৭ বছর বয়সী এক নারী সোজা নিচের তুষারপাতের ওপর পড়ে গেছেন। কিন্তু এতে তেমন একটা আহত হননি তিনি। বরং নিশ্চিন্তভাবে হেঁটে চলে যান।

মেইল অনলাইনের খবরে এই অস্বাভাবিক ঘটনার কথা জানা গেছে। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ইজলুচিনস্ক শহরের নবমতলার একটি অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক থেকে পড়ে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকবার ডিগবাজি খেয়েছেন ওই নারী।

স্তূপিকৃত বিপুল তুষারের মধ্যে গিয়ে তিনি পড়েন। এসময় তার শরীরের আঘাতে চারপাশে তুষার ছড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে।

সত্যিই এটা ছিল ভয়ে হৃদযন্ত্র বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা। প্রথমে তাকে কিছুটা সময় নিশ্চল হয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু একটু পড়েই তিনি নড়তে শুরু করেন এবং সোজা হয়ে বসেন। নিজেকে টেনে তুলে সামনে হাঁটা দেন।

যদিও এ পর্যন্ত ওই নারীর কোনো পরিচয় মেলেনি। স্থানীয়রা বলেন, তবে পরে প্রতিবেশীদের সহায়তা চেয়েছেন, তাদের অ্যাম্বুলেন্স ডাকতে অনুরোধ করেছেন ওই নারী।

পশ্চিম সাইবেরিয়ার তেলসমৃদ্ধ স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল সাইবেরিয়ার একটি হাসপাতালে বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

চিকিৎসকরা স্বীকার করেন যে ওই নারীর শরীরে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। তবে কোনো হাড় ভাঙেনি। ২২ জানুয়ারি যখন এই ঘটনা ঘটে তখন ওই অঞ্চলে তাপমাত্রা মাইনাস ১৪ সেলসিয়াস ছিল।

এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত করছে। তবে ওই নারী বলেন, ঘটনার সময় তিনি বাসায় একা ছিলেন। 

এতে কোনো অপরাধের গন্ধ পাওয়া না গেলেও কেন তিনি এভাবে পড়ে গেলেন, সেই কারণ জানা সম্ভব হয়নি।

 

৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী (ভিডিও)

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৫ জানুয়ারি ২০২০, ০১:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী (ভিডিও)
ছবি: মেইল অনলাইন

রাশিয়ার একটি টাওয়ার ভবন থেকে ২৭ বছর বয়সী এক নারী সোজা নিচের তুষারপাতের ওপর পড়ে গেছেন। কিন্তু এতে তেমন একটা আহত হননি তিনি। বরং নিশ্চিন্তভাবে হেঁটে চলে যান।

মেইল অনলাইনের খবরে এই অস্বাভাবিক ঘটনার কথা জানা গেছে। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ইজলুচিনস্ক শহরের নবমতলার একটি অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক থেকে পড়ে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকবার ডিগবাজি খেয়েছেন ওই নারী।

স্তূপিকৃত বিপুল তুষারের মধ্যে গিয়ে তিনি পড়েন। এসময় তার শরীরের আঘাতে চারপাশে তুষার ছড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে।

সত্যিই এটা ছিল ভয়ে হৃদযন্ত্র বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা। প্রথমে তাকে কিছুটা সময় নিশ্চল হয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু একটু পড়েই তিনি নড়তে শুরু করেন এবং সোজা হয়ে বসেন। নিজেকে টেনে তুলে সামনে হাঁটা দেন।

যদিও এ পর্যন্ত ওই নারীর কোনো পরিচয় মেলেনি। স্থানীয়রা বলেন, তবে পরে প্রতিবেশীদের সহায়তা চেয়েছেন, তাদের অ্যাম্বুলেন্স ডাকতে অনুরোধ করেছেন ওই নারী।

পশ্চিম সাইবেরিয়ার তেলসমৃদ্ধ স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল সাইবেরিয়ার একটি হাসপাতালে বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

চিকিৎসকরা স্বীকার করেন যে ওই নারীর শরীরে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। তবে কোনো হাড় ভাঙেনি। ২২ জানুয়ারি যখন এই ঘটনা ঘটে তখন ওই অঞ্চলে তাপমাত্রা মাইনাস ১৪ সেলসিয়াস ছিল।

এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত করছে। তবে ওই নারী বলেন, ঘটনার সময় তিনি বাসায় একা ছিলেন।

এতে কোনো অপরাধের গন্ধ পাওয়া না গেলেও কেন তিনি এভাবে পড়ে গেলেন, সেই কারণ জানা সম্ভব হয়নি।